বাংলাদেশে হিন্দু সম্পর্কে ভুল ভাঙালেন ভারতেরই মন্ত্রী

ঢাকা, শুক্রবার   ২১ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৭ ১৪২৬,   ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

বাংলাদেশে হিন্দু সম্পর্কে ভুল ভাঙালেন ভারতেরই মন্ত্রী

 প্রকাশিত: ২০:৫৪ ২০ জুলাই ২০১৮   আপডেট: ২০:৫৪ ২০ জুলাই ২০১৮

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

বাংলাদেশে হিন্দু জনসংখ্যা ক্রমাগতভাবে কমে যাচ্ছে- এমন দাবি করে আসছে ভারতের হিন্দুত্ববাদী কিছু সংগঠন। এ নিয়ে উদ্বেগও প্রকাশ করেছে। কিন্তু এ ধারণা যে সঠিক নয় তা জানাল খোদ ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

তার দাবি, বাংলাদেশে হিন্দু জনসংখ্যা কমছে না, বরং ক্রমাগতভাবে বাড়ছে।

বৃহস্পতিবার ভারতের সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভার সদস্যদের এক প্রশ্নের জবাবে তা জানালেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

সুষমা স্বরাজ বলেন, ২০১৭ সালে বাংলাদেশে হিন্দু জনগোষ্ঠীর সংখ্যা দুই শতাংশ বেড়েছে। বাংলাদেশ ব্যুরোর পরিসংখ্যান অনুসারে ২০১১ সালে সে দেশে হিন্দু জনগোষ্ঠীর সংখ্যা ছিল ৮ দশমিক ৪ শতাংশ। আর ২০১৭ সালে এ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ দশমিক ৭ শতাংশে।

তিনি জনানা, ধারণা করা হয়ে থাকে বাংলাদেশ থেকে হিন্দুরা চলে যাচ্ছে ও সে দেশে তাদের সংখ্যা কমছে। কিন্তু বাংলাদেশে জনসংখ্যাতাত্ত্বিক (ডেমোগ্রাফিক চেঞ্জ) পরিবর্তন ঘটছে। সে দেশে হিন্দুদের সংখ্যা বাড়ছে।

সুষমা স্বরাজ বলেন, এটা সত্য যে বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা ও নির্যাতন চালানো হয়। তবে এ বিষয়ে বাংলাদেশ সরকার কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে।

লিখিত জবাবে তিনি আরো বলেন, প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানে সংখ্যালঘুদের হত্যা, নির্যাতন, অপহরণ এবং ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ভাঙচুরের খবর পাওয়া যায়। বিষয়গুলো উদ্বেগজনক।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই