Alexa ডিজিটাল সেবা চালু করেছে কোটস

ঢাকা, বুধবার   ১১ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২৭ ১৪২৬,   ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১

ডিজিটাল সেবা চালু করেছে কোটস

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৫৪ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৮:৫৮ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

গ্রাহকদের সুবিধার্থে ডিজিটাল সেবা চালু করেছে শীর্ষস্থানীয় সুতা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান কোটস। এতে প্রতিষ্ঠানটি সমন্বিত প্রযুক্তির মাধ্যমে নতুন একটি ব্র্যান্ডের অধীনে সফটওয়্যার সল্যুশন সম্পর্কিত সব সেবা দিতে পারবে। ফলে গ্রাহকরা একইসঙ্গে পোশাক ও জুতাশিল্পের সেবা পাবেন।

সোমবার ও আজ মঙ্গলবার নিউইয়র্কের পি আই অ্যাপারেলে এবং আগামী ২৫ থেকে ২৮ সেপ্টম্বর চীনের সাংহাইয়ের সিসমাতে অনুষ্ঠিতব্য দুটি আর্ন্তজাতিক বাণিজ্য মেলায় কোটস ডিজিটাল নতুন ব্র্যান্ড প্রদর্শন করবে।

কোটস ডিজিটাল কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) ও বিগ ডেটার মতো সর্বাধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে পোশাক ও জুতাশিল্পে সফটওয়্যার সল্যুশন সেবা দেবে। এর মাধ্যমেই বিশ্বব্যাপী কোটস ব্র্যান্ডটির অবদান, বিশ্বাসযোগ্যতা, আস্থা ও অভিজ্ঞতা আরো সুদৃঢ় হবে। গ্রাহকদের সুবিধার্থে সমন্বিত প্রযুক্তির মাধ্যমে একসঙ্গে অনেকগুলো সেবা নিশ্চিত করবে কোটস।

ধারবাহিক অগ্রগতির মাধ্যমে এ শিল্পে জিএসডি, ফাস্ট রিঅ্যাক্ট ও থ্রেডসলের মতো প্রতিষ্ঠান তৈরি করেছে কোটস। এগুলো দারুণভাবে সফলও হয়েছে।

কোটস ডিজিটালের নেতৃত্ব দেবেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কেইথ ফেনার। বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফটে মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার বিজনেস অ্যাপ্লিকেশনের গ্রুপ ডিরেক্টর ছিলেন কেইথ। এছাড়াও কম্পিউটার অ্যাসোসিয়েটস, সেইজের মতো প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোতে কাজ করেছেন তিনি। এই শিল্পে ২০ বছরের বেশি সময় ধরে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার।

কেইথ ফেনার বলেন, সফটওয়্যর সল্যুশনের ক্ষত্রে একটি চমকপ্রদ নতুন যুগের সূচনা করবে কোটস ডিজিটাল। একইসঙ্গে এ শিল্পের উন্নয়নে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিজস্ব ভূমিকা রাখবে। আগামীতে আমরা উদ্ভাবিত প্রযুক্তির মাধ্যমে ভবিষ্যতের উন্নত ফ্যাশন শিল্পের বিকাশ, টেকসই পণ্য উৎপাদনসহ বিভিন্ন বিষয়ে কাজ করা হবে।

কোটস ডিজিটালের স্লোগান হচ্ছে ‘ট্রান্সফরম উইথ ইনটেলিজেন্স’ বা ‘বুদ্ধিমত্তার মাধ্যমে রূপান্তর’। চিত্র ও লেখার সমন্বয়ে কোটস ডিজিটাল একটি নান্দনিক নতুন লোগো উন্মোচন করেছে। কোটসের সঙ্গে মিল রাখতে লোগোর রঙ নীল রাখা হয়েছে।

পৃথিবীর ৬৫টিরও বেশি দেশে কোটস ডিজিটাল এ শিল্পের উন্নয়নে অবদান রাখছে। প্রতিষ্ঠানটির পাঁচ হাজারেরও বেশি খুচরা বিক্রেতা, উৎপাদনকারীসহ এ শিল্প সংশ্লিষ্টদের মাধ্যমে সারাবিশ্বের গ্রাহকদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএস/এমআরকে