.ঢাকা, সোমবার   ২২ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৮ ১৪২৬,   ১৬ শা'বান ১৪৪০

বসুন্ধরা কিংসের চমকের পর চমক

 প্রকাশিত: ১৬:০১ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৬:০১ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ওসমান - ছবি: সংগৃহীত

ওসমান - ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের ফুটবলকে সমৃদ্ধ করতে ও দর্শকদের মাঠে টানতে কাজ করছে বাংলাদেশের ঘরোয়া পেশাদার লিগে অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা বসুন্ধরা কিংস। একেরপর এক চমক উপহার দিচ্ছে ফুটবলপ্রেমীদের।

রাশিয়া বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া কোস্টারিকান ফরোয়ার্ড ড্যানিয়েল কলিনড্রেসকে দলে টানার খবর প্রকাশের একদিন পর গাম্বিয়ান স্ট্রাইকার উসমান জ্যালোর অন্তর্ভুক্তির কথা জানাল ক্লাবটি।

নতুন মৌসুমে বসুন্ধরা কিংসের আক্রমণভাগে ড্যানিয়েল কলিনড্রেসের সঙ্গে জুটি বাঁধবেন চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন উসমান জ্যালো। আগামী ২১ সেপ্টেম্বর নীলফামারীতে মালদ্বীপের ঘরোয়া ফুটবলের চ্যাম্পিয়ন নিউ রেডিয়েন্টের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ দিয়ে বসুন্ধরা কিংসের হয়ে অভিষেক হতে যাচ্ছে এই জুটির।

২৯ বছর বয়সী জ্যালোর জন্ম গাম্বিয়াতে। ২০০৫ সালে অনূর্ধ্ব-১৭ আফ্রিকান ন্যাশনস কাপের শিরোপাজয়ী দলের সদস্য ছিলেন তিনি। ফাইনালে তার গোলেই শিরোপা জয় নিশ্চিত হয় গাম্বিয়ার। এরপর ২০০৭ সালের অনূর্ধ্ব-২০ বিশ্বকাপে খেলে নজর কাড়েন এই স্ট্রাইকার। যুব দলের হয়ে ৭ ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা নিয়ে জাতীয় দলে অভিষিক্ত হন ২০০৮ সালে। জাতীয় দলের হয়ে ১৮ ম্যাচে ৬ গোল করেছেন তিনি।

জ্যালোর ক্যারিয়ারের উজ্জ্বল মুহূর্ত কেটেছে ইউরোপীয় ফুটবলে। ফিনল্যান্ডের ক্লাব হেলসিংকির হয়ে ২০১৫ সালে চ্যাম্পিয়নস লিগের বাছাইপর্বে খেলেছিলেন লাটভিয়ান ক্লাবের বিপক্ষে। ৩-১ গোলে ফিনিশ চ্যাম্পিয়নদের জয়ে ১টি গোলও করেছিলেন তিনি।

হেলসিংকি ক্লাবের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের আরেক বাছাইপর্বে কাজাখস্তানের ক্লাব এফসি আস্তানার বিপক্ষেও গোল আছে এই ফরোয়ার্ডের। এছাড়া ইউরোপা লিগেও গোল করার অভিজ্ঞতা আছে তার। ফিনিশ ক্লাব হেলসিংকির হয়ে লিগ শিরোপা, ফিনিশ কাপ এবং ফিনিশ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জেতার স্বাদ পেয়েছেন জ্যালো।

জ্যালোর ক্যারিয়ারে আরও একটি অধ্যায় অনেকেরই অজানা। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে তাকে দলে নিতে চেয়েছিল ইংলিশ জায়ান্ট আর্সেনাল ও চেলসির মতো ক্লাব। কিন্তু ওয়ার্ক পারমিট না থাকায় ইংলিশ লিগে খেলার স্বপ্ন পূরণ হয়নি এই গাম্বিয়ানের।

সবকিছু ঠিক থাকলে বুধবার ঢাকায় এসে পৌঁছাবেন হাই প্রোফাইল ফুটবলার উসমান জ্যালো।

ডেইলি বাংলাদেশ, আরএস/সালি