বরগুনায় যুবকের মৃত্যুর পর ১২ জন অসুস্থ

ঢাকা, শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২২ ১৪২৭,   ১২ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

বরগুনায় যুবকের মৃত্যুর পর ১২ জন অসুস্থ

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:২০ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৭:২২ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

বরগুনার পাথরঘাটায় মানিক হাওলাদার নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এর পরপরই একই পরিবারের আরো ১২ জন পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন।

এ ঘটনায় বরগুনা জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ উদ্বিগ্ন হয়ে পরেছে। বরগুনার সিভিল সার্জন মো. হুমায়ুন শাহিন খান বৃহস্পতিবার হাসপাতাল ও রোগীর বাড়িঘরের পরিবেশ পরিদর্শন করেছেন।

পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, গত দুই দিনে ভর্তি রোগীরা হলেন- জাহিদুল ইসলাম, সাইদুল ইসলাম, জান্নাতি আক্তার, শাহারিয়ার, ইমা আক্তার, নাঈম হোসেন, মুক্তার আক্তার, নাজমুল হোসেন, শাহীনূর বেগম, নাসরিন আক্তার, মিনারা বেগম ও পিয়ারা বেগম। 

মানিক হাওলাদার বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার কোড়ালিয়া গ্রামের ইদ্রিস হাওলাদারের ছেলে। আর হাসপাতালে ভর্তি ওই ১২ জন রোগী মানিক হাওলাদারের স্বজন। 

বরগুনা জেলা সিভিল সার্জন মো. হুমায়ুন শাহিন খান পরিদর্শন শেষে বলেন, ধারণা করা হচ্ছে সরাসরি পুকুরের পানি পান করায় ও খাদ্যে বিষক্রিয়ায় ওই রোগীরা পাথরঘাটা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এ ঘটনায় পানিবাহিত ডায়েরিয়ার চিকিৎসা চলছে। তবে ওই বাড়িসহ গ্রামবাসীরা ইচ্ছেমতো পুকুরের পানি পানসহ ব্যবহার করছেন। তবে বিশ্ব আবহাওয়ার সঙ্গে এ ঘটনার কোনো সম্পর্ক নেই।

স্থানীয়রা বলেন, মানিক হাওলাদারের প্রতিবেশী বাচ্চু জমাদ্দারের বয়লার মুরগির খামারের দুই শতাধিক মুরগি মারা যায়। শুনেছি ওই মুরগির বেশিরভাগই খালপাড়ে প্রকাশ্যে ফেলে দেয়া হয়েছে। এতে পরিবেশ দূষিত হতে পরে। এ ঘটনায় মশা-মাছির মাধ্যমেও খাবারে বিষক্রিয়া হতে পারে। 

মানিক হাওলাদারের স্ত্রী সালমা আক্তার বলেন, আমার স্বামী মানিক হাওলাদার মারা যাওয়ার আটদিন আগে সাগর থেকে মাছ শিকার করে বাড়িতে এসেছেন। আসার পর থেকেই জ্বর, বমি ও পাতলা পায়খানা চলছিল। কিছু বুঝে ওঠার আগেই সে আরো অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরের দিন দুপুরে হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান।

এ বিষয় পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. আবুল ফাত্তাহ বলেন, একই বাড়ি ও এলাকা থেকে ১২ জন রোগী হাসপাতালে আসায় ও একজনের মৃত্যুর ঘটনায় রোগীর স্বজনরা কিছুটা উদ্বিগ্ন। অসুস্থদের চিকিৎসায় সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে গ্রামবাসীদের সুস্থ থাকতে সুপেয় পানি পানের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর