ববি’র শাফিন এখন এরশাদের

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২০ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৬ ১৪২৬,   ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

ববি’র শাফিন এখন এরশাদের

 প্রকাশিত: ১৫:৫৩ ১৯ জুলাই ২০১৮   আপডেট: ১৭:০৮ ১৯ জুলাই ২০১৮

জাপা চেয়ারম্যান এরশাদের হাতে ফুল দিয়ে দলে যোগ দেন শাফিন আহমেদ

জাপা চেয়ারম্যান এরশাদের হাতে ফুল দিয়ে দলে যোগ দেন শাফিন আহমেদ

কথিত ধনকুবের মুসাপুত্র ববি হাজ্জাজের দল জাতীয়তাবাদি গণতান্ত্রিক আন্দোলনের শীর্ষনেতা, দেশবরেণ্য সঙ্গীত শিল্পী শাফিন আহমেদ জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন।

সকালে বারিধারা’র প্রেসিডেন্ট পার্কে সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের হাতে ফুল দিয়ে জাপায় যোগ দেন তিনি। এসময় উপস্থিত ছিলেন পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির সভাপতি মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা, প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ আজম খান, কেন্দ্রীয় নেতা জাকির হোসেন মৃধা প্রমুখ। 

এরশাদ বলেন, আগামী নির্বাচনে তিনশো আসনেই অংশ নিতে প্রস্তুত জাতীয় পার্টি। তবে, বিএনপি নির্বাচনে এলে এক ধরনের পরিকল্পনা আর না এলে ভিন্ন পরিকল্পনা।  

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, দেশের মানুষ জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দেখতে চায়। সারাদেশে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। সে জন্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, শিল্পপতি, সমাজসেবকসব সবস্তরের মানুষ জাতীয় পার্টিতে যোগ দিচ্ছেন।

শাফিনের যোগদানে এরশাদ আশা প্রকাশ করে বলেন, বিশিষ্ট শিল্পী শাফিন আহমেদ দলে যোগ দেয়ায় জাতীয় পাটিতে আরো আরো অনেক সাংস্কৃতিক কর্মী যোগ দেবেন।

রাজনীতির খায়েশে ২০১৭ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি ববির সঙ্গে হাত মেলান শাফিন আহমেদ। যোগ দেন এনডিএমে। রাজনীতির হাতেখড়িতেই হয়ে যান দলের নীতি-নির্ধারক। শাফিনকে করা দলের উচ্চ পরিষদের সদস্য। দল গঠনের শীর্ষনেতা ও নির্বাহী কমিটির সঙ্গে কোনো ধরনের আলোচনা ছাড়াই তাকে করা হয় উচ্চ পরিষদের সদস্য। এরপর এনডিএমে চলে স্বেচ্ছাচারিতা। দলের এসব অনৈতিক কার্যক্রম মেনে না নেয়ায় বহিস্কার করা হয় এনডিএমের মূল উদ্যোক্তা সাবেক জাপা নেতা এটিএম গোলাম মাওলা চৌধুরীকে। বহিস্কার থেকে বাদ যায়নি জাপা থেকে এনডিএমে আসা আরেক নেতা আবু সৈয়দও। শুরু হয় বহিস্কার আর প্লাটা বহিস্কার। নির্বাহী কমিটির ১৬ সদস্যের ১৪ জনই ববির বিপক্ষে অবস্থান নেন। মাওলা চৌধুরীর পক্ষে তারা বহিস্কার করেন ববি হাজ্জাজকে। যাত্রার আগে এনডিএম পড়ে প্রশ্নের মুখে। ধারাবাহিকভাবে এনডিএম ছাড়ে আরো অনেকে। সারাদেশে একসঙ্গে ছাত্র আন্দোলন ছাড়ে প্রায় এক হাজার সদস্য। তারপরও বন্ধ হয়নি এনডিএম চেয়ার‌ম্যানের একক নিয়ন্ত্রণ। বিশেষ করে ‘বিশেষ সহকারী’নামধারী স্বেচ্ছাচারিতা। এরপর দল ছাড়েন এনডিএমে যাওয়া আরেক তারকশিল্পী তাজিন আহমেদ। আর এবার ববি’র সঙ্গ ছাড়লেন শাফিন আহমেদ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এলকে