Alexa বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের দাবি ১৪ দলের

ঢাকা, সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ১ ১৪২৬,   ১৬ মুহররম ১৪৪১

Akash

বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের দাবি ১৪ দলের

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:১১ ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৮:৩৩ ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ছবি: বাসস

ছবি: বাসস

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার দাবি জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ১৪ দলের নেতারা।

মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার দণ্ডিত পালাতক খুনিদের দেশে ফেরত আনার পদক্ষেপ’ বিষয়ক মতবিনিময় সভায় বক্তারা এ দাবি জানান। কেন্দ্রীয় ১৪ দল এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম সভাপতির বক্তব্যে বলেন, দ্রুততম সময়ের মধ্যে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডে চিহ্নিত ও দণ্ডিত খুনিদের রায় বাস্তবায়ন ও হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত সবার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে হবে।

তিনি বলেন, জনগণের সামনে এই সব চিহ্নিত খুনি ও এই ঘটনার ইন্ধনদাতাদের মুখোশ উন্মোচিত করতে হবে।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, পলাতক খুনিদের খুঁজে বের করার সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে। আর যে দুজনের অবস্থান জানা আছে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি। নূর চৌধুরীকে কানাডা সরকার কোনো রাজনৈতিক আশ্রয় দেয়নি। তবে সে দেশের সুপ্রিমকোর্টের রায়ের কারণে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত কাউকে তারা ফেরত দেয় না। তবে আমরা আশাবাদী কূটনৈতিক ও আইনের মাধ্যমে আমরা তাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারবো। সেই চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

তিনি বলেন, রাশেদ চৌধুরীকে দেশে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র আগের চেয়ে পজিটিভ কন্ডিশনে আছে। তাকে ফিরিয়ে আনা নিয়ে আমরা আশাবাদী।

আইনমন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যে কারা ছিলো তা উদঘাটনে কমিশন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এই কমিশনে কারা থাকবে এবং এর কার্যপরিধি কি হবে তা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী সিদ্ধান্ত দেবেন। তবে কমিশনের আওতায় বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জাতীয় চার নেতা হত্যাকাণ্ডের বিষয়টিও অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, এখন পর্যন্ত হত্যাকারীদের তিনজনের সঠিক অবস্থান জানি না। তবে আমরা দুই জনের অবস্থান জানি তারা কোথায় আছেন। আগামী বছর বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী আয়োজনের আগেই তাদের দণ্ড কার্যকরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে।

আলোচনা সভায় বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, আওয়ামী লীগ নেতা মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া ও অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দিলীপ রায়, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক উপদেষ্টা সিনিয়র সাংবাদিক ইকবাল সোবহান চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে/এস