বঙ্গবন্ধুর জীবন-কর্ম নিয়ে হিমাদ্রী’র ৭ ফুট লম্বা বই

ঢাকা, সোমবার   ৩০ মার্চ ২০২০,   চৈত্র ১৬ ১৪২৬,   ০৫ শা'বান ১৪৪১

Akash

বঙ্গবন্ধুর জীবন-কর্ম নিয়ে হিমাদ্রী’র ৭ ফুট লম্বা বই

জাকারিয়া চৌধুরী, হবিগঞ্জ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:০৯ ১৭ মার্চ ২০২০  

হিমাদ্রীর বইয়ে লেখা হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর জীবন-কর্ম

হিমাদ্রীর বইয়ে লেখা হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর জীবন-কর্ম

জন্মশতবর্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন-কর্ম নিয়ে সাত ফুট লম্বা ও তিন ফুট চওড়া কবিতার বই তৈরি করেছেন হবিগঞ্জের হিমাদ্রী দাশ রুবেল। বইটি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হাতে তুলে দিতে চান মুজিবপ্রেমী এ তরুণ।

হিমাদ্রী দাশ রুবেল হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার সুবিদপুর ইউপির সুনারু গ্রামের বাসিন্দা।

তিনি বলেন, ছোট থেকেই মনে বঙ্গবন্ধুর প্রতি ভালোবাসা জন্মেছে। বাবার মুখে তার অনেক গল্প শুনেছি। বিভিন্ন সময় বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছোট কবিতার বই প্রকাশ করেছি। জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে বড় কিছু করার ইচ্ছা ছিল। এ কারণেই ব্যতিক্রম এ কবিতার বই তৈরির সিদ্ধান্ত নেই।

হিমাদ্রী দাশ বলেন, জানুয়ারি থেকেই বইটি তৈরির কাজ শুরু করি। বইয়ে বঙ্গবন্ধু ও তার কর্ম-জীবনের সঙ্গে রাখা হয়েছে বিশেষ মিল। বঙ্গবন্ধু বেঁচে ছিলেন ৫৫ বছর, বইয়ে পৃষ্ঠা রয়েছে ৫৫টি। বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ১৭ মার্চ, বইয়ের ওজন ১৭ কেজি। শতবর্ষ স্মরণে কবিতার সংখ্যাও ১০০টি। খরচও হয়েছে এক লাখ টাকা।

হিমাদ্রীর বইয়ে লেখা হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর জীবন-কর্ম

তিনি আরো বলেন, যে মানুষটি আমাদের একটি পতাকা, একটি স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছেন তাকে উৎসর্গ করেই বইটি তৈরি করেছি। বইটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে তুলে দিতে চাই। এজন্য জনপ্রতিনিধিসহ সবার সহযোগিতা চাই।

রুবেলের মা বিভা রাণী দাশ বলেন- অভাবের সংসারে রং-তুলি, কাগজ কেনার টাকা ছিল না। এ কারণে রুবেলকে বাধা দিতাম। পরে যখন বুঝতে পারলাম ও বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বই তৈরি করছে তখন আমরাও সহযোগিতা করেছি। বইটি তৈরি করতে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে ধার করেছে রুবেল।

বানিয়াচং উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আবুল কাশেম চৌধুরী বলেন, হিমাদ্রীর পরিবার খুবই দরিদ্র। দারিদ্র্য উপেক্ষা করে তিনি বঙ্গবন্ধুর জন্য এত বড় একটি বই তৈরি করেছেন। এটি সত্যিই প্রশংসনীয়।

হবিগঞ্জ-২ আসনের এমপি অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খান বলেন, অনেকেই মুখে বঙ্গবন্ধুর নামে নেয়। বঙ্গবন্ধুর জন্য কখনোই কিছু করে না। এই ছেলেটি দরিদ্র হওয়ার পরও যা করেছে তা প্রশংসনীয়। আমরা বইটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পৌঁছে দিতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর