Alexa বঙ্গবন্ধুতে ‘বাংলাদেশ’!

ঢাকা, সোমবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৯ ১৪২৬,   ২৪ মুহররম ১৪৪১

Akash

বঙ্গবন্ধুতে ‘বাংলাদেশ’!

এস আই রাসেল ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৩২ ১১ জুন ২০১৯   আপডেট: ২১:৩৮ ১১ জুন ২০১৯

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে কাতার বিশ্বকাপের প্রাক বাছাইয়ের ফিরতি লেগে মুখোমুখি হয় স্বাগতিক বাংলাদেশ ও সফরকারী লাওস। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হয় ম্যাচটি। স্টেডিয়ামে আরো এক পক্ষ দেখা যায়। যারা দর্শক। চিৎকার হচ্ছে একটি নাম বাংলাদেশ। স্টেডিয়ামে লাল-সবুজের জার্সিতে টই-টম্বুর দর্শকে। বাংলাদেশকে নির্বাসনে যেতে দেয়নি খেলোয়াড়রা। গোলশূন্য ড্র করেই মাঠ ছাড়ে লাল-সবুজরা। দ্বিতীয় বারের মত সুযোগ পায় বিশ্বকাপ বাছাইয়ের চূড়ান্ত পর্বে।

স্টেডিয়ামকে সাজানো হয়েছে নতুন সাজে। ছেটে ফেলা হয়েছে মাঠের অতিরিক্ত ঘাস । দর্শকরা সমর্থন দেবে দেশকে। জয়ের জন্য ফুটবলারদের সঙ্গে যুদ্ধে নামবে সমর্থকরা- এমনটাই খেলার আগের দিন প্রত্যাশা করেছিলেন লাল-সবুজদের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার।

তিনি বলেছিলেন, আমরা লাওসকে হারিয়ে দেশের মাটিতে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটা খেলতে যাচ্ছি। আশা করছি দর্শকরা আমাদের সমর্থন দেবে মাঠে এসে। তারা আমাদের অনেক বেশি অনুপ্রেরণা যোগায়। মাঠে দর্শক থাকা মানে চাপের থেকেও আরো ভালো করার অনুপ্রেরণা।

বাংলাদেশের দর্শকরা লাল-সবুজের অধিনায়ককে হতাশ করেননি। তার ডাকে সাড়া দিতে। বাংলাদেশকে সমর্থন দিতে স্টেডিয়ামে হাজির হয়েছে হাজার হাজার দর্শক।  নানান রঙে সেজে, কেউ বা হাতে পতাকা নিয়ে। কেউ বা লাল-সবুজের জার্সিতে উপস্থিত হয়েছে গ্যালারীতে। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ানে কিছু সময় পরপর একটা চিৎকার শোনা যাচ্ছে বাংলাদেশ, বাংলাদেশ। প্রেস বক্সে ও দেখা যায় আমেজ।অনেক সাংবাদিকরা ও পেশাগত কাজের বাইরেও দেশকে সমর্থন দিতে লাল-সবুজের জার্সি পরে স্টেডিয়ামে এসেছেন। দর্শকদের সমর্থন ও ভালোবাসা দেখে মনে হচ্ছে তারা লাল-সবুজের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে চায়।

দর্শকের উপস্থিত নিশ্চিত ও ফুটবল খেলা দেখতে উৎসাহ দিচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল সাপোর্টারস ফোরাম। আজকের ম্যাচে এত দর্শক উপস্থিতির ব্যাপারে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের পাশাপাশি কাজ করেছে বাংলাদেশ ফুটবল সাপোর্টার ফোরাম।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ফুটবল সাপোর্টার্স ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহাদাত হোসেন যুবায়ের বলেন, আমাদের নামই আমাদের কাজ। বাংলাদেশের ফুটবলকে সমর্থন দিতেই আমাদের যত চেষ্টা। আমাদের মাধ্যেমে ঢাকার ও ঢাকার বাইরে থেকে প্রায় এক হাজারের বেশি দর্শক খেলা দেখতে এসেছে। ফোরামের পক্ষ থেকে তাদের সবাইকে সৌজন্য টিকিট দেয়া হয়েছে। স্টেডিয়ামে ঢোকার আগে আমরা র‍্যালি-মিছিল করেছি। লাল-সবুজের পতাকা নিয়ে। অনেকে জার্সি পরে ঢোল-তবলা নিয়ে মাঠে উপস্থিত হয়েছে। আমাদের মুখে একটাই শব্দ বাংলাদেশ। আমরা চাই বাংলাদেশ জিতুক। যদি ও ড্র্ব করে তাও বাংলাদেশ বিশ্বকাপ বাছাইয়ে সুযোগ পাবে। তারপরও আমরা জয় চাই। বাংলাদেশ ভালো কিছু করুক এই আমাদের প্রত্যাশা। 

লাওসের ঘরের মাঠে প্রথম লেগে লাওসকে ১-০ গোলে হারায় লাল সবুজের বাংলাদেশ। দ্বিতীয় লেগে গোলশূনয় ড্রতে মাঠ ছাড়ল জামাল ভুঁইয়ার দল।
এবার এ ম্যাচে ড্র করেই বাংলাদেশ নিশ্চিত করল ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপের মূল বাছাইপর্ব খেলার। বিশ্বকাপের অন্তত আটটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেল বাংলাদেশ। তবে হারলে আরও তিন-চার বছর আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের বাইরে থাকতে হতো লাল-সবুজদের। আবারও নির্বাসনে যাওয়ার ভয়তো ছিলই! 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস