বই মেলায় ‘আগ্নেয়াস্ত্র প্রশিক্ষণ-নবীশ থেকে পেশাদার’

ঢাকা, বুধবার   ০১ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ১৮ ১৪২৬,   ০৭ শা'বান ১৪৪১

Akash

বই মেলায় ‘আগ্নেয়াস্ত্র প্রশিক্ষণ-নবীশ থেকে পেশাদার’

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৩৯ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৫:৪৩ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

বইমেলায় পুলিশ সদস্যদের আগ্নেয়াস্ত্র পরিচালনায় দক্ষতা অর্জনের জন্য বাংলা ভাষায় রচিত আগ্নেয়াস্ত্র প্রশিক্ষণ-নবীশ থেকে পেশাদার-বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেছেন ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। বইটি লিখেছেন বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমী, সারদা, রাজশাহীতে কর্মরত পুলিশ সুপার আবদুল কুদ্দুছ চৌধুরী।

রোববার এক আরম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে অমর একুশে গন্থ মেলায় এই বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। ডিএমপি গণমাধ্যম ও জনসংযোগ বিভাগের ডিসি মো. মাসুদুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।

মোড়ক উন্মোচন শেষে ডিএমপি কমিশনার বলেন, পুলিশ সুপার আবদুল কুদ্দুছ চৌধুরী চমৎকার একটি বই লিখেছেন। বইটি পুলিশের পেশাদারি জ্ঞান ও সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে। 

ভবিষ্যতে তিনি আরো সুন্দর বই লিখবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে কমিশনার বলেন, আমাদের সক্ষমতা বৃদ্ধি না হলে জনগণের নিরাপত্তা বিধান করা সম্ভব না। বইটি সম্পূর্ণ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর জন্য প্রযোজ্য। বইটি কিনতে হলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের আইডি কার্ড (পরিচয়পত্র) দেখিয়ে কিনতে হবে। এ বিষয়ে প্রকাশককে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।

বই প্রকাশের লক্ষ্য: বহুমাত্রিক সন্ত্রাসবাদের কারণে নিজের ও অন্যের নিরাপত্তায় নিয়োজিত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের আগ্নেয়াস্ত্র পরিচালনায় যুগোযোগী দক্ষতা অজর্নের কোনো বিকল্প নেই। অস্ত্র পরিচালনার পূর্বশর্ত হলো অস্ত্রের ওপর ভীত দূর করতে হবে। আর অস্ত্র পরিচালনায় মৌলিক নিরাপত্তা নীতি রপ্ত করে বাস্তব ক্ষেত্রে সফলভাবে প্রয়োগ করতে হবে। অস্ত্র পরিচালনায় মৌলিক নিরাপত্তা নীতির চর্চা যেমন নিজেকে ও অন্যকে নিরাপদ রাখবে তেমনি প্রশিক্ষণার্থীরা সফলতার সঙ্গে অস্ত্র চালনায় পারদর্শী হবে।

আগ্নেয়াস্ত্র প্রশিক্ষণ-নবীশ থেকে পেশাদার বইয়ে অস্ত্রভীতি, আগ্নেয়াস্ত্রের বিভিন্ন অংশের পরিচিতি, আগ্নেয়াস্ত্র প্রশিক্ষণের আনুষাঙ্গিক উপকরণ, আগ্নেয়াস্ত্র গ্রহণ, সমর্পণ ও নিরাপদ করার বিষয়ে উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া, প্রস্তুতের অবস্থাগুলো ও আগ্নেয়াস্ত্র পরিচালনার মৌলিক নিরাপত্তার মূলনীতির চর্চা সম্পর্কিত বিষয়গুলো ধাপে ধাপে বর্ণনা করা হয়েছে। বইটি বাংলাদেশ পুলিশে সদ্য যোগদানকারী ও কর্মরত সব স্তরের সদস্যদের উদ্দেশ্যে প্রণীত হয়েছে। বইয়ের ভাষা সহজ-সরল ও প্রাঞ্জল রাখার চেষ্টা করা হয়েছে। টেকনিক্যাল শব্দগুলো বাংলার পাশাপাশি ইংরেজিতে ও লেখা হয়েছে। আগ্নেয়াস্ত্র প্রশিক্ষণ বিষয়ে এই গুরুত্বপূর্ণ বইটি সংকলন করেছেন লেখক নিজেই। 

লেখকের পরিচিতি: আবদুল কুদ্দুছ চৌধুরীর জন্ম ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া উপজেলার পশ্চিম ছাগলনাইয়া গ্রামে। তিনি ১৯৯৯ সালে ১৮তম বিসিএস পরীক্ষার মাধ্যমে সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। ২০০৬ সালে গণপ্রজাতন্ত্রী কঙ্গোতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে পার্সোনেল ও সিকিউরিটি অফিসার হিসেবে এক বছর দায়িত্ব পালন করেন। তিনি জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রম (ইউএন ডিপিকেও) কর্তৃক ২০১১ সালে ইউএন সার্টিফিকেট ফায়ার আর্মস ইনস্ট্রাক্টর সনদ অর্জন করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/এমআরকে