Alexa বইমেলায় পুরস্কার জিতল শিশুরা 

ঢাকা, শনিবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৬ ১৪২৬,   ২১ মুহররম ১৪৪১

Akash

বইমেলায় পুরস্কার জিতল শিশুরা 

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৩৬ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ২০:৩৯ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

শিশুদের জন্য একুশে বইমেলা হচ্ছে এক আনন্দের শহর। এখানেই তারা দেখতে পায় রূপকথায় পড়া নানান চরিত্রের বাস্তব রূপ। বোকাবাক্সে দেখা ইকরি-শিকুদেরও পাওয়া যায় হাতছোঁয়া দূরত্বে। শিশুদের এই আনন্দময় পরিবেশে গেল সপ্তাহে হয়েছিল এক প্রতিযোগিতার। যার ফলাফল প্রকাশ হলো আজ।  

শুক্রবার দুপুরে শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন, সংগীত প্রতিযোগিতা, সাধারণ জ্ঞান ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদ ও বাংলা একাডেমির সচিব মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। 

শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় ক-শাখায় প্রথম হয়েছেন আনায়া জাকির হোসেন। এস. এম নাহিয়ান দ্বিতীয় ও তাহেরুননেসা রিচি হয়েছেন তৃতীয়।

খ-শাখায় প্রথম হয়েছেন আল মুমিনুর। অর্নিলা ভৌমিক ও মেহেনাজ আক্তার নাদিয়া হয়েছেন দ্বিতীয় ও তৃতীয়। গ-শাখায় আফরিদা ফারহানা খান প্রথম, নবনীতা হালদার দ্বিতীয় ও নাফিসা তাবাসসুম অথৈ তৃতীয় স্থান লাভ করেন।  

শিশু-কিশোর সংগীত প্রতিযোগিতায় ক-শাখায় সুব্রানা আলী সোহা ও তানজিম বিন তাজ প্রত্যয় প্রথম, সহিষ্ণু আইচ ও সিদরাতুল মুনতাহার দ্বিতীয়, আফরা আদিলা রিমঝিম ও জাহিন জারা তাবাসসুম হয়েছেন তৃতীয়। 

খ-শাখায় গার্গী ঘোষ ও তানিশা জাহান নরিকা প্রথম, মোঃ রেজওয়ানুল করিম তানভীর ও অধরা সরকার দ্বিতীয় এবং উম্মে তাসনিয়া বুশার ও মৈত্রেয়ী ঘোষ তৃতীয় স্থান লাভ করেন।  

শিশু-কিশোর উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় নিসার বিন সাইফুল্লাহ জাহিন প্রথম, কাশফিয়া কাওসার চৌধুরী দ্বিতীয় এবং শাঁওলী সামরিজা তৃতীয় স্থান পেয়েছেন। 

সাধারণ জ্ঞান প্রতিযোগিতায় মো. মুনতাজিম রহমান সায়মন প্রথম, নুসাইবা নাজমী খান ও তাইয়্যেবা দ্বিতীয় ও মো. শাহারিয়ার আহম্মেদ তৃতীয় স্থান লাভ করেন। 

পুরস্কার প্রদানের পর প্রধান অতিথির বক্তব্যে চিত্রশিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদ বলেন, শিশুরা লেখাপড়া করে কেবল ডাক্তার-প্রকৌশলী হবে এমন নয়। সৃজনশীল প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে তারা বিশ্ববিখ্যাতও হতে পারে। আমি আশা করি আমাদের শিশুরা একদিন তাদের মেধা ও মনন দিয়ে আমাদের দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএস/আরএইচ/জেডআর