ফ্যাশনে গামছার বাজিমাত
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=105808 LIMIT 1

ঢাকা, রোববার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ৬ ১৪২৭,   ০২ সফর ১৪৪২

ফ্যাশনে গামছার বাজিমাত

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৫৫ ১৯ মে ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

গোসলের পর শরীর মোছার জন্য যে জিনিসটি আমরা সবাই ব্যবহার করি তা হলো গামছা। তবে কী না সেই যুগে যদি আপনি পড়ে থাকেন তা হলে সব গেল। কারণ গামছাকে অত হেলাফেলা করার দিন কিন্তু আর নেই। এমনিতে গামছা হলো বিভিন্ন রঙে আকর্ষণীয় কাপড়। আমরা তেমন পাত্তা না দিলেও গামছা ছাড়া কিন্তু বাঙালি পালা-পার্বণ এক্কেবারে অচল। তবে সদ্যই গামছার দরটা একটু হলেও বেড়েছে। বাড়ির বারান্দায় তারে ঝোলানো হেলাফেলার গামছাটি বিবি রাসেলের হাত ধরে আন্তর্জাতিক হয়েছে ৷ আর এরপরেই হঠাৎই গামছা ঢুকে পড়েছে এক্কেবারে সটান সাজঘরে। একফালি গামছা দিয়ে এখন কী না হচ্ছে। আর জেনে রাখুন, প্রথমত গামছা সুতির কাপড়। গরমে পারফেক্ট। দ্বিতীয়ত ইউনিক। আর এতেই ভর গরমে বাজিমাৎ।

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বাংলাদেশী ফ্যাশন মডেল এবং নকশাকার বিবি রাসেলপ্রথমে আসা যাক শাড়িতে। গামছা চেকের শাড়ি এখন দারুন ট্রেন্ডি। একটু ভাল বুটিক কালেকশনে চোখ রাখলেই হাজার একটা গামছা চেকের শাড়ি পেয়ে যাবেন হাতের কাছে। সকালে পুজো দিতে গেলে আদি সাদা-লাল গামছা চেক পরুন। সবচেয়ে ভাল লাগবে আটপৌরে ধাঁচে পড়লে। চুল খোলা থাক। কপালে ছোট্ট লাল টিপ আর গাঢ় কাজল। শুধু কিন্তু গামছা শাড়িতে আটকে থাকলে চলবে না।

গামছা শাড়িশাড়ি পছন্দ না হলে যে কোনো ব্লক কালার সুতি বা খাদির শাড়ির সঙ্গে কনট্রাস্টে পরুন গামছা চেক ব্লাউজ। দুর্দান্ত মানাবে। তবে হ্যাঁ, নববর্ষ বলে কথা। ব্লাউজেও থাকতে হবে স্পেশ্যালিটি। থ্রি-কোয়ার্টার বা গ্লাস স্লিভসের সঙ্গে গামছা চেকের কুঁচি বা ফ্রিল ট্রাই করতে পারেন। ঘটি হাতা ব্লাউজও সাবেকি সাজের সঙ্গে ফাটাফাটি। আর জরা হাটকে সাজতে চাইলে কোল্ড সোল্ডার তো আছেই। ফুল হাতাও ট্রাই করতে পারেন। তবে অবশ্যই সকালের দিকে। না হলে গরমের হাত থেকে আপনাকে কে বাঁচাবে? 

গামছা দিয়ে তৈরি জুয়েলারিএ তো গেল শাড়ি-ব্লাউজের কথা। তবে লং ম্যাক্সি ড্রেসের চল রয়েছে। গামছা চেক ড্রেস বাছতে পারেন। অফ শোল্ডার সুতির লং গাউন দারুন মানাবে পয়লার দিনে।আরো একটা পোশাক কিন্তু এখন ইয়ং জেনারেশনের হট লিস্টে। লং স্কার্ট আর র‍্যাপার। আর সেখানেও অবশ্যম্ভাবী গামছা। ব্লক কালারের স্কার্টে থাকতে পারে গামছা পাড়। বা পুরো স্কার্টটাই চেকের ওপর হতে পারে। আবার প্লেইন সুতির স্কার্টের সঙ্গে টাই-আপ করতে পারেন গামছা চেক টপও। শুধু কী জামাকাপড় পরলেই হল? সঙ্গে গয়না না হলে আর পয়লা বৈশাখ কী? গামছা প্রিন্টের গয়নাও কিন্তু হট কেকের মতো বিক্রি হচ্ছে বাজারে। কী নেই সেখানে? ব্যাঙ্গলেস থেকে নেক পিস, দুল থেকে আংটি সবটাই পাবেন।

সুপারস্টার শাহরুখ খানের গায়ে গামছা শার্টছেলেরা ভাবতে পারে সব সাজগোজ শুধুই মেয়েদের বেলা। ছেলেরা যেন বানের জলে ভেসে এসেছে। এমনকী গামছাও বোধহয় তাঁদের মোটে পাত্তা দিচ্ছেনা। জ্বী না, এই ধারণা কিন্তু একেবারেই ভুল। গামছা চেক শার্ট, পঞ্জাবিতে গামছার পোঁচ, চেক কুর্তা, গামছা পেড়ে ধুতি সবটাই দোকানে রেডি আপনারই জন্য।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস