Alexa ফেসবুকে পলিটেকনিক প্রশ্নপত্র ফাঁসের নামে প্রতারণা

ঢাকা, শনিবার   ২০ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৫ ১৪২৬,   ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪০

ফেসবুকে পলিটেকনিক প্রশ্নপত্র ফাঁসের নামে প্রতারণা

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৫০ ২৮ জুন ২০১৯   আপডেট: ১৫:০৭ ২৮ জুন ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষাতেও প্রশ্নপত্র নিয়ে অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে এক শ্রেণির কুচক্রী মহল। তারা বিভ্রান্ত করছে ছাত্র-ছাত্রীদের। চালাচ্ছে প্রতারণা। হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। আর এসবে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে তারা বেছে নিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া; যার মধ্যে অন্যতম ফেসবুক।

প্রশ্নফাঁস কুচক্রের হোতারা এরইমধ্যে ফেসবুকে বিভিন্ন নামে পেজ বা গ্রুপ খুলে তাদের সদস্য বা ফলোয়ার সংগ্রহ করতে শুরু করেছে। ফলোয়ার বাড়াতে সেখানে বিভিন্ন ধরনের প্রলোভনযুক্ত লেখা পোস্ট করা হচ্ছে। যার সব-ই ভুয়া এবং উদ্দেশ্য শেষমেস টাকা হাতানো।

তবে এসএসসি, এইচএসসি ও বিসিএস পরীক্ষার মতো কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষায়ও প্রশ্ন ফাঁস মুক্ত রাখতে কঠোর অবস্থানে সরকার। পরীক্ষায় যেকোনো অনিয়ম রোধে সরকারের নির্দেশ মোতাবেক সোচ্চার রয়েছেন শিক্ষা সংশ্লিষ্টরাও। ২৫ জুন শুরু হওয়া কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কঠোর নজরদারি চালিয়ে যাচ্ছে।

জানা যায়, Politechnic Exam Question Helpline"BD, পলিটেকনিক প্রশ্নপত্র ও Politechnic Exam Question & Helpline নামের কয়েকটি ফেসবুক পেজ ও গ্রুপ প্রশ্নপত্র ফাঁসের নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপতৎপরতা চালাচ্ছে। কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের বিভ্রান্ত করতে কারিগারি শিক্ষাবোর্ডের লোগোও ব্যবহার করেছে তারা। এসব আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজরে এসেছে। এরইমধ্যে সেসব গ্রুপ ও পেজের ডাটাবেজ তৈরির কাজও শুরু হয়েছে। গ্রুপগুলোর অ্যাডমিন ও ফলোয়ারদের ওপর মনিটরিং এবং নজরদারীও করছে। আইনের আওতায় আনা হচ্ছে বাকিদেরও। এছাড়া এসব গ্রুপের ফলোয়ারদের মধ্যে যারা শিক্ষার্থী রয়েছে তাদের ডাটাবেজ তৈরি করা হচ্ছে।

ভুয়া প্রশ্নফাঁসের নামে ফেসবুক পেজ এর স্ক্রিনশট

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের তথ্যমতে, ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষাক্রমের ২০১৬ প্রবিধানভুক্ত ২য়, ৪র্থ, ৬ষ্ঠ পর্ব নিয়মিত ও ৫ম পর্ব অকৃতকার্য বিষয় এবং ২০১০ প্রবিধানভুক্ত ৬ষ্ঠ, ৮ম পর্ব নিয়মিত/অনিয়মিত ও ৪র্থ, ৫ম, ৭ম পর্ব অকৃতকার্য বিষয়ের পরীক্ষা-২০১৯ শুরু হয়েছে। এর সঙ্গে ডিপ্লোমা ইন ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি শিক্ষাক্রমের ২০১৬ প্রবিধানভুক্ত ২য়, ৪র্থ ও ৬ষ্ঠ পর্ব সমাপনী এবং ৩য়, ৫ম পর্বের অকৃতকার্য বিষয়ের পরীক্ষা-২০১৯ এর পরীক্ষা ২৫ জুন থেকে শুরু হয়েছে। যা শেষ হবে ২২ জুলাই।

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তারা জানান, প্রশ্ন ফাঁস মুক্ত শিক্ষা ব্যবস্থায় বর্তমান সরকারের প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানিয়ে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডও সবদিক থেকে প্রস্তুত।

এ বিষয়ে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ২৫ জুন থেকে শুরু হওয়া এবারের পরীক্ষায় এখন পর্যন্ত প্রশ্ন ফাঁসের মতো কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। বিগত সময়ে দেশের সবগুলো বোর্ড পরীক্ষার মতো আমরাও একটি প্রশ্ন ফাঁস মুক্ত পরীক্ষা উপহার দিতে প্রস্তুত। যেকোনো মূল্যে শিক্ষা ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সরকারের পরিকল্পনায় আমরা সর্বোচ্চ সহযোগিতা করবো।

এদিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বলছেন, বিগত বোর্ড পরীক্ষাগুলোর ন্যায় দেশের সব বোর্ড পরীক্ষাতে প্রশ্ন ফাঁসের মতো অপতৎপরতা রুখে দিতে বাহিনীর সদস্যরা সারা বছরই নিয়োজিত রয়েছে। কারিগরি শিক্ষা বোর্ড পরীক্ষাতেও আমাদের নজরদারি চলমান রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই