ফেনীতে একদিনে করোনা শনাক্তের রেকর্ড

ঢাকা, সোমবার   ০৬ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ২২ ১৪২৭,   ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

ফেনীতে একদিনে করোনা শনাক্তের রেকর্ড

ফেনী প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:১০ ২৯ মে ২০২০   আপডেট: ১৬:১১ ২৯ মে ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ফেনীতে শুক্রবার দুই পরিবারের ১৪ জনসহ নতুন করে ৪৩ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। 

জেলা সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাদ হোসেন জানান, সকালে নোয়াখালীর আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরীক্ষাগার ৪৩ জনের করোনা পজিটিভ উল্লেখ করে প্রতিবেদন পাঠিয়েছে। করোনার সংক্রমণ শুরুর পর জেলায় একদিনে করোনা শনাক্ত হওয়ার দিক থেকে এটাই সর্বোচ্চ রেকর্ড।

শনাক্তদের মধ্যে সদর উপজেলায় ১৪ জন, দাগনভূঞায় ১৮ জন, সোনাগাজীতে ৯ জন, পরশুরাম ও ছাগলনাইয়ায় ১ জন করে রয়েছেন।

সদর উপজেলায় শনাক্ত ১৪ জনের মধ্যে একজন এলজিইডি ও একজন ব্যাংক কর্মচারী। এছাড়া শহরের মাস্টারপাড়ায় ১ জন, ডাক্তারপাড়ায় ১ জন, শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার সড়কে ১ জন, হাজারী রোডে ১ জন, ধর্মপুর ইউপিতে ১ জন ও শর্শদী ইউপিতে ১ জন রয়েছেন।

দাগনভূঞার আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে একই পরিবারের ৯ জন। তাদের বাড়ি রাজাপুর ইউপির জয়নারায়ণপুরে। এছাড়া সদর ইউপির জগতপুরে ৩ জন, পূর্ব চন্দ্রপুরে ৩ জন, সিন্দুরপুরে ২ জন ও ১ জন রাজাপুর এলাকার বাসিন্দা।

সোনাগাজী উপজেলার মতিগঞ্জ ইউপির একই পরিবারের ৫ জন, বগাদানা ইউপিতে কাজিরহাট এলাকায় বাবা ও তিন বছর বয়সী মেয়ের করোনা শনাক্ত হয়েছে। 

ফুলগাজী উপজেলার উত্তর দৌলতপুর সাহাপাড়া এলাকার ৫০ বছর বয়সী নারীর করোনা শনাক্ত হয়েছে। তিনি পরশুরাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়েছেন। ছাগলনাইয়া উপজেলার মহামায়া ইউপির উত্তর যশপুরে একজন আক্রান্ত হয়েছেন।

গত ১৬ এপ্রিল জেলায় প্রথম এক যুবকের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। এরপর দেড় মাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৩ জনে। সুস্থ হয়েছেন ৫৩ জন।

স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ১ হাজার ৩৯৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে পাঠান হয়। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেজ (বিআইটিআইডি), চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় এবং নোয়াখালী আবদুল মালেক মেডিকেল কলেজ থেকে মঙ্গলবার ১ হাজার ২৩১ জনের প্রতিবেদন আসে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ