ফিলিস্তিনের কাছে হেরে বাংলাদেশের স্বপ্নভঙ্গ

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২০ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৬ ১৪২৬,   ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

ফিলিস্তিনের কাছে হেরে বাংলাদেশের স্বপ্নভঙ্গ

 প্রকাশিত: ১৭:৩৯ ১০ অক্টোবর ২০১৮   আপডেট: ১৭:৩৯ ১০ অক্টোবর ২০১৮

ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত

নিজেদের দেশে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের শিরোপা জেতার স্বপ্ন নিয়েই মাঠে নেমেছিল লাল-সবুজের দল। কিন্তু সেমিফাইনালে ফিলিস্তিনের কাছে ২-০ গোলে হেরে  স্বপ্ন ভাঙল বাংলাদেশের। শুক্রবারের ফাইনালে তাজিকিস্তানের মোকাবেলা করবে ফিলিস্তিন।

কক্সবাজারের বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে ফিফা র‍্যাংকিংয়ের ১০০তম স্থানে থাকা ফিলিস্তিনের মুখোমুখি হয় ১৯৪-এ থাকা বাংলাদেশ। র‍্যাংকিং ছাড়াও ফিলিস্তিনের খেলোয়াড়দের উচ্চতা ও শারীরিক সামর্থ্য যে ম্যাচে প্রভাব ফেলবে তা আগে থেকেই ধারণা করা হচ্ছিল। হয়েছেও তাই।

দর্শকপূর্ণ স্টেডিয়ামে প্রত্যাশা মেটাতে পারেন নি বাংলাদেশের ফুটবলাররা। মাঠের পিচ্ছিল ভাব দেখেই কি না শুরু থেকেই লম্বা পাসে খেলতে থাকে ফিলিস্তিন। গোলও পেয়ে যায় দ্রুতই।

ম্যাচের শুরুতে বল পেয়েই বাংলাদেশকে চেপে ধরে ফিলিস্তিন। প্রথম মিনিটেই কর্নার আদায় করে নেয়। সেখান থেকে পরিস্থিতি সামনে ২ মিনিটের মাথায় ডি বক্সের বাইরে থেকে বিপলুর শট ফিলিস্তিনের গোল বারের পাশ দিয়ে চলে যায়। তার ছয় মিনিট পরেই লিড পায় ফিলিস্তিন। মুসা আল বাত্তাতের পাস থেকে

হেড থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন মোহাম্মদ বালাহ।

২১ মিনিটের মাথায় একটি দারুণ সুযোগ তৈরি করেন জীবন। বল নিয়ে মাঝ মাঠ থেকে ডি বক্সের সামনে থেকে পাস দেন সুফিলকে। সেখানে গোল রক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে পারেন নি সুফিল।

তারপরের মিনিটেই আরও বড় সুযোগ পায় বাংলাদেশ। এবার ফাঁকা জাল পেয়েও বল ঠিকানায় ফেলতে পারেননি জীবন। বারের সাইডে মেরে দেন বল। এই নাম্বার নাইনই প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে ডি বক্সের ভেতর থেকে লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নিলে আরেকটি সুযোগ নষ্ট হয়। হতাশ হয় সমর্থকরা।

গোল করার সুযোগ আরও কয়েকবার পেলেও তা থেকে কাঙ্ক্ষিত ফল পেতে ব্যর্থ হন জীবন-তপুরা। দ্বিতীয়ার্ধেও গোল করার সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। এরমধ্যে ৬০ মিনিটের পর টানা তিনবার কর্নার পেলেও তা কাজে লাগাতে পারেন নি কেউই।

সুযোগ মিস করেছে ফিলিস্তিনও। তবে বাংলাদেশের গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানার দৃঢ় ভূমিকায় গোল করতে পারেন নি ফিলিস্তিনের খালেদ। এরপর ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ হারাতে থাকে বাংলাদেশ।

শেষ দিকে দুটি কর্নার পেলেও ফিলিস্তিনের লম্বা ডিফেন্ডারদের কারণে তা থেকে হেড করে গোল আদায় করতে পারেনি বাংলাদেশ। উল্টো শেষ বাঁশি বাজার ঠিক আগ মুহূর্তে দাব্বাঘের হেড থেকে ভাগ্যক্রমে বল পেয়ে জোরালো শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ফিলিস্তিনের ফরোয়ার্ড মারাবাহ।

এই হারে দ্বিতীয়বারের মতো বঙ্গবন্ধু গোল্ডাকাপের ফাইনালে ওঠার স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল বাংলাদেশের। এর আগে ২০১৫ সালে ফাইনালে ওঠেছিল লাল-সবুজের জার্সিধারীরা।

শুক্রবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে গোল্ডকাপের ফাইনালে তাজিকিস্তানের মুখোমুখি হবে ফিলিস্তিন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস