ফাইনালের টার্ণিং পয়েন্ট যেখানে দুর্ভাগ্য
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=119708 LIMIT 1

ঢাকা, রোববার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ৬ ১৪২৭,   ০২ সফর ১৪৪২

ফাইনালের টার্ণিং পয়েন্ট যেখানে দুর্ভাগ্য

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৪৬ ১৫ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ১৯:৪৬ ২২ জুন ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

শেষ হলো আইসিসি বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসর। ব্যাট বলের রোমাঞ্চকর লড়াই শেষে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। তবে ম্যাচের খুব বড় সময়জুড়েই নিয়ন্ত্রণ ছিল নিউজিল্যান্ডের হাতে। 

ম্যাচের শেষ দিকের দুটি ঘটনাই মূলত ঘুরিয়ে দেয় ম্যাচের মোড়। শেষ দুই ওভারে তেমন কিছু না হলে হয়তো চ্যাম্পিয়ন হিসেবে থাকতো নিউজিল্যান্ডেরই নাম। 

তখন ৪৯তম ওভারের খেলা চলছে। ৯ বলে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ২২ রান। এমন সময়ে বোলিং দলের দিকে অর্থাৎ নিউজিল্যান্ডের দিকেই হেলে ছিল ম্যাচ। নিশামের করা বলটি তুলে মারেন স্টোকস। 

ছবি: সংগৃহীত

একেবারে বাউন্ডারি লাইনে বলটি ধরা পড়ে বোল্টের হাতে। তবে দুর্ভাগ্য, বোল্ট নিজেকে সংযত রাখতে না পেরে সীমানা দড়িতে পা দিয়ে ফেলেন। ফলাফল, আউটের বদলে ছয়। ৮ বলে ১৬ রানের প্রয়োজনে ম্যাচ চলে আসে ইংল্যান্ডের দিকে। 

শেষ ওভারে আবারো ম্যাচ নিউজিল্যান্ডের হাতে। ৩ বলে ৯ রান প্রয়োজন ইংল্যান্ডের, যা সে সময়ের হিসেবে কঠিনই ছিল। বোল্টের বল ডিপ মিড উইকেট দিয়ে খেলেন স্টোকস। দৌড়ে মাত্র ২ রানই নিতে পারেন তিনি। 

ছবি: সংগৃহীত

তবে গাপটিলের থ্রো স্টোকসের ব্যাটে লেগে চার হয়ে যায়। ফলে ইংল্যান্ডের স্কোরবোর্ডে যোগ হয় ৬ রান। কার্যত ওখানেই কিউইদের ভাগ্য অনেকটা শেষ হয়ে যায়। 

ম্যাচের শেষাংশে এমন ভুল বা দুর্ভাগ্য না হলে হয়তো শিরোপা নিয়ে উৎসব করতে পারতো নিউজিল্যান্ড। কিন্ত ক্রিকেট যে গৌরবময় অনিশ্চয়তার খেলা, এটিই যেনো আরেকবার প্রমাণিত হলো ফাইনালে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল/সালি