ফতুল্লায় আবারো শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ৫০

.ঢাকা, শুক্রবার   ২৬ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ১২ ১৪২৬,   ২০ শা'বান ১৪৪০

ফতুল্লায় আবারো শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ৫০

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৬:১৩ ৬ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৬:১৩ ৬ ডিসেম্বর ২০১৮

ডেইলি বাংলাদেশ

ডেইলি বাংলাদেশ

উৎপাদন মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে বৃহস্পতিবার ফতুল্লায় আবারো শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ হয়েছে। এতে ২০ পুলিশসহ অর্ধশত সাধারণ শ্রমিক আহত হয়েছে। 

উপজেলার ফতুল্লা থানার ভোলাইল এলাকায় এন আর গ্রুপের শ্রমিক ও পুলিশের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা বলেন, উৎপাদন মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে শ্রমিকরা কর্মবিরতি দিয়ে নারায়ণগঞ্জ-মুন্সিগঞ্জ সড়কে অবস্থান নেয়। এ সময় তারা রাস্তায় গাছের গুঁড়ি ফেলে আগুন ধরিয়ে অবরোধ সৃষ্টি করে। 

খবর পেয়ে ফতুল্লা থানা পুলিশ ও শিল্প পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের রাস্তা থেকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে শ্রমিকরা পুলিশের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। এক পর্যায়ে শ্রমিক-পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ ও কয়েক দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। 

এসময় ২০ পুলিশসহ অন্তত অর্ধশত শ্রমিক আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড টিয়ার সেল ও সর্টগানের গুলি ছোঁড়ে। সংঘর্ষের কারণে একঘন্টা নারায়ণগঞ্জ-মুন্সিগঞ্জ সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে।

পরে স্থানীয় সংসদ সদস্য শামীম ওসমান কারখানা মালিকদের সাথে কথা বলে শ্রমিকদের দাবী পূরণের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা শান্ত হয়। দুপুর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সড়কে যান চলাচল শুরু হয়।

নারায়ণগঞ্জ শিল্প পুলিশ-৪ এএসপি মাহাবুব উন নবী বলেন, শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করলে পুলিশ তাদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। এসময় শ্রমিকরা পুলিশের উপর হামলা করলে ২০ পুলিশ সদস্য আহত হয়।

পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। বর্তমানে পরিস্খিতি সআবাভাবিক রয়েছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এর আগে সোমবারও একই দাবিতে ফতুল্লার বিসিক শিল্প নগরীতে অবস্থিত ফকির গ্রুপের শ্রমিকদের বিক্ষোভের সময় শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ বেশ কয়েকজন শ্রমিক আহত হন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস