প্রায়ই শিশু গৃহকর্মী আছিয়ার চিৎকার শুনতো প্রতিবেশীরা

ঢাকা, বুধবার   ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ১৫ ১৪২৭,   ১২ সফর ১৪৪২

প্রায়ই শিশু গৃহকর্মী আছিয়ার চিৎকার শুনতো প্রতিবেশীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৩৬ ১৮ জুলাই ২০২০  

শিশু গৃহকর্মী আছিয়া

শিশু গৃহকর্মী আছিয়া

রাজধানীর মিরপুরের রূপনগরে শিশু গৃহকর্মী আছিয়াকে নির্যাতনের ঘটনায় এক দম্পতিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রতিবেশীরা জানান, প্রায় দিনই শিশুটির চিৎকার শোনেন তারা। 

গ্রেফতাররা হলেন, গৃহকর্ত্রী শাহনাজ বেগম ও নির্যাতনে সহায়তাকারী তার স্বামী সাজ্জাদুল বাশার। 

শনিবার রূপনগর আবাসিক এলাকার ৯ নম্বর রোডের ১৮ নম্বর বাড়ির তৃতীয় তলার একটি ফ্ল্যাট থেকে আছিয়াকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শিশুটি অভিযোগ করে, গৃহকর্ত্রীর মেজাজ খারাপ হলে প্রায়ই তার গায়ে গরম পানি ছুঁড়ে মারতেন। গৃহকর্তা দেখেও কিছু বলতেন না। তাকে বাঁচানোর চেষ্টাও করতেন না।

রূপনগর থানার এসআই মো. আসাদুজ্জামান জানান, গৃহকর্তা সাজ্জাদুল বাশার একটি ক্লিনিকে কাজ করেন। তার স্ত্রী শাহনাজ বেগম গৃহিণী। নোয়াখালীর হাতিয়ার অছিয়াকে তারা বাসায় কাজে নেন ৪ বছর আগে। কিন্তু কাজের কথা বললে আছিয়া শুনতে চাইতো না, তাই তারা নির্যাতন করতেন বলে স্বীকার করেছে।

সকালে শিশুটি নির্যাতনের সময় চিৎকার করতে থাকে। এ সময় আশপাশের লোকজন বাড়ির সামনে জমে যায়। ঠিক তখন রূপনগর থানার টহল টিম সেখানে যায়। প্রতিবেশীরা অভিযোগ করে প্রায় দিনই শিশুটির চিৎকার শোনেন তারা। পরে পুলিশ তিন তলায় গিয়ে শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের সত্যতা পায়।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরো বলেন, এই দম্পতির দুই সন্তান রয়েছে। যার মধ্যে একজনের বয়স ৮ বছর ও অন্যজনের বয়স ৬ মাস। তাদের বড় সন্তানের মতোই বয়স কাজের মেয়েটির। কিন্তু একবারও নির্যাতন করার সময় তাদের এ বিষয়টি চিন্তা হয়নি!

তিনি বলেন, এই দম্পতি দুটো অপরাধ করেছেন। একটি হলো আন্ডার এইজ’র শিশুকে কাজে নিয়েছেন। অন্যদিকে নির্যাতন করেছেন।

জানা গেছে, রূপনগর থানায় নিয়ে আসার পর চারদিকে পুলিশ দেখে ভয় পেয়ে যায় শিশুটি। সে কোনো কথা বলতে চায় না। কিছু জানতে চাইলে ভয়ে ভয়ে কথা বলে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এসসি/এসআই