প্রাইভেট পড়তে গিয়ে শ্লীলতাহানির শিকার সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=191843 LIMIT 1

ঢাকা, বুধবার   ১২ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৮ ১৪২৭,   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

প্রাইভেট পড়তে গিয়ে শ্লীলতাহানির শিকার সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী

আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০২:২২ ৪ জুলাই ২০২০  

অভিযুক্ত শিক্ষক মো. আশরাফুল আলম হিরণ

অভিযুক্ত শিক্ষক মো. আশরাফুল আলম হিরণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় প্রাইভেট পড়তে গিয়ে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রী শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। অভিযুক্ত মো. আশরাফুল আলম হিরণ ওই উপজেলার মোগড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক।

শুক্রবার বিদ্যালয়ের এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয় বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি। এছাড়া ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ভুক্তভোগী ছাত্রীর মা।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে আশরাফুল আলম হিরণের কাছে প্রাইভেট পড়তে আসে ওই ছাত্রী। প্রাইভেট শেষে তার শ্লীলতাহানি করেন হিরণ। এতে ওই ছাত্রীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত লাগে। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে স্কুল কর্তৃপক্ষ সহকারী প্রধান শিক্ষক হিরণকে সাময়িক বরখাস্ত করে।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি নোয়াব মিয়া জানান, সহকারী প্রধান শিক্ষক আশরাফুল আলম হিরণের বিরুদ্ধে ওই ছাত্রীর অভিভাবক অভিযোগ করেছেন। প্রাথমিকভাবে সত্যতা পাওয়ায় শুক্রবার কমিটির জরুরি সভায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শওকত আকবর খান জানান, অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। স্কুল কর্তৃপক্ষও তাকে বরখাস্ত করেছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিতে প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

আখাউড়া থানার ওসি রসুল আহমদ নিজামী জানান, অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর