Alexa প্রস্রাবের জ্বালাপোড়া কমায় শাপলা

ঢাকা, শনিবার   ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২৯ ১৪২৬,   ১৬ রবিউস সানি ১৪৪১

প্রস্রাবের জ্বালাপোড়া কমায় শাপলা

সাদিকা আক্তার  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:২৯ ১ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৫:৫২ ১ নভেম্বর ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

শাপলা এক ধরনের জলজ উদ্ভিদ। বাংলাদেশে দুই ধরনের শাপলা দেখতে পাওয়া যায়। একটি লাল অন্যটি সাদা। সবজি হিসেবে শাপলার জনপ্রিয়তা অনেক। প্রতি ১০০ গ্রাম শাপলার লতায় রয়েছে খনিজ পদার্থ ১.৩ গ্রাম, আঁশ ১.১ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ৭৬ মিলিগ্রাম ও শর্করা ৩১.৭ গ্রাম। শাপলার রয়েছে প্রচুর ক্যালসিয়াম। যা আলুর চেয়ে সাত গুন বেশি।

জানেন কি? শাপলায় রয়েছে নানাবিধ ওষুধি গুণাগুণ। যা আমাদের বিভিন্ন রোগ থেকে মুক্ত রাখে। মায়ের বুকের দুধ বাড়াতে, ডায়বেটিস সমস্যায়, চোখ পরিষ্কার রাখতে, ঋতুস্রাব সমস্যায়, চর্ম ও রক্ত আমাশয়ে, অ্যালার্জি ও ডায়েরিয়া সমস্যায় শাপলা ওষুধের মতো কাজ করে। এছাড়া আয়রন ও ক্যালসিয়ামের অভাব পূরণে শাপলায় রয়েছে কার্যকরী গুণাগুণ।

শাপলাতে থাকা ফ্রেভনল গ্লাইকোসাইড মাথায় রক্ত সঞ্চালনে সাহায্য করে মাথা ঠান্ডা রাখে। শাপলা শরীরকে শীতল রাখে, হৃদযন্ত্রের কার্যকারিতা বাড়ায় ও পিপাসা দূর করে। প্রস্রাবের জ্বালাপোড়া। প্রস্রাবে অস্বস্তি অনেকেরই হতে পারে। তবে আপনি যদি প্রস্রাব করার সময় ব্যথা অনুভব করেন, তবে আপনার হয়তো ডিসইউরিয়ার সমস্যা হয়েছে। এই সমস্যায় প্রস্রাবের সময় ব্যথা, জ্বালাপোড়া ও অস্বস্তি হয়। 

এটি কোনো রোগ নয়, রোগের উপসর্গ। এটি নারী ও পুরুষ উভয়ের ক্ষেত্রেই খুব প্রচলিত সমস্যা। তবে পুরুষের তুলনায় নারীদের সমস্যাটি বেশি হয়। প্রস্রাবে ব্যথা বা জ্বালাপোড়া হওয়ার একটি কারণ হতে পারে ইউরিনারি ট্রাক্ট ইনফেকশন বা ইউটিআই। আর পুরুষের ক্ষেত্রে প্রোস্টেট গ্রন্থির বিভিন্ন সমস্যার জন্য এটি হতে পারে। এছাড়া কিডনিতে পাথর হওয়া, কিডনিতে সংক্রমণ হওয়া, যৌনবাহিত রোগ, ভ্যাজাইনাল ইনফেকশন, পানিশূন্যতা এগুলোর কারণেও কিন্ত প্রস্রাবে ব্যথা বা জ্বালাপোড়ার সমস্যা হতে পারে।

সমস্যা খুব বেশি হলে অবশ্যই চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে। তবে এর আগে কিছু দিন শাপলা সবজি হিসাবে খেতে পারলে সমস্যাটি কমাতে সাহায্য করবে। সাম্প্রতিক গবেষণায় জানা গেছে, শাপলায় ডায়াবেটিক রোগের জন্য প্রয়োজনীয় ঔষুধি গুণাগুণ রয়েছে।

১. লাল শাপলা এ্যালার্জী ও রক্ত আমাশয়ের জন্য বেশি উপকারী। শাপলা প্রধানত এ্যাসিডিটি, এ্যানেসথেসিক, সেরোটিক, ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন ধরনের মানসিক রোগে ব্যবহৃত হয়।

২. শাপলা একটি ঠান্ডা তরকারি। এটি লিভার ও পিত্ত ঠান্ডা রাখে।এছাড়া এতে পর্যাপ্ত পরিমাণে আয়রন ও ক্যালসিয়াম আছে। যা আমাদের শরীরে আয়রন ও ক্যালসিয়ামের অভাব অনেকটা পূরণ করে থাকে।

৩. শাপলা মায়ের বুকের দুধ বাড়াতে সহায়তা করে থাকে। শাপলার ডাটার ভিতর যে পানি থাকে তা ফুটিয়ে চোখে দিলে চোখ পরিষ্কার হয়। লাল শাপলা খুব উপকারী। লাল শাপলার চারটি অথবা পাঁচটি ফুল বেঁটে খেলে ঋতুস্রাব পরিষ্কার হয়।

৪. শাপলা খুব পুষ্টি সমৃদ্ধ সবজি। সাধারণত শাক-সবজির চেয়ে এর পুষ্টিগুণ অনেক বেশি। শাপলা চর্ম ও রক্ত আমাশয়ের জন্য বেশ উপকারী। লাল শাপলা অ্যালার্জি ও রক্ত আমাশয়ের জন্য বেশ উপকারী। শাপলা প্রধানত অ্যাসিডিটি অ্যানেসথেসিক, সেরোটিক ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন ধরনের মানসিক রোগে ব্যবহৃত হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস