প্রতিদিন ১০০ গ্লাস পানি না খেলে লোকটি মারা যাবে!
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=187896 LIMIT 1

ঢাকা, সোমবার   ১০ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৬ ১৪২৭,   ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

প্রতিদিন ১০০ গ্লাস পানি না খেলে লোকটি মারা যাবে!

ফিচার ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:০৫ ১৫ জুন ২০২০   আপডেট: ১৪:৩১ ১৫ জুন ২০২০

ছবি: মার্ক উববেনহর্স্ট

ছবি: মার্ক উববেনহর্স্ট

মানুষের বেঁচে থাকার জন্য পানির প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। তবে অতিরিক্ত পানি পান করার ফলে মানুষ বিরল পরিস্থিতিতে পড়তে পারে। সুস্থ থাকার জন্য প্রতিদিন আট থেকে ১০ গ্লাস (দুই থেকে তিন লিটার) পানি খাওয়ার প্রয়োজন পড়ে। তবে কখনো কি শুনেছেন? কেউ ১০০ গ্লাস অর্থাৎ ২০ লিটার পানি পান করে। 

হ্যাঁ! ঠিক শুনেছেন। অবাক করা হলেও সত্যিই যে, জার্মানির বিলিফেল্ডে বসবাসকারী মার্ক উববেনহর্স্ট নামক ব্যক্তিকে প্রতিদিন ১০০ গ্লাস পানি পান করতে হয়। তা না হলে সে মারা যাবে। 

৩৬ বছর বয়সী এই ব্যক্তি একটি বিরল রোগে আক্রান্ত। এ রোগের কারণে তার একজন সাধারণ মানুষের চেয়ে অনেক বেশি পরিমাণ তৃষ্ণা পায়। এত বেশি তৃষ্ণা যে সে এক দিনে ১০০ গ্লাস, তার মানে প্রায় ২০ লিটার পানি পান করে থাকেন। 

পানি না খেলে বাঁচবেন না মার্কতিনি দুই ঘণ্টার বেশি ঘুমাতে পারেন না। কারণ তার আধা ঘণ্টা পর পর টয়লেটে যেতে হয়। সে ডায়াবেটিস ইনসিপিডাস নামে একটি বিরল রোগে ভুগছেন। অতিরিক্ত প্রস্রাবের কারণে সবসময় তৃষ্ণার্ত থাকেন তিনি। পানি পান করার একটু পরেই তার প্রস্রাবের বেগ পায়। কারণ তার শরীর পানি ধরে রাখতে পারে না। 

এই ব্যক্তি কেবল রাতে কয়েক ঘন্টা ঘুমান। কারণ তাকে বারবার পানি খাওয়ার জন্য জেগে থাকতে হয়। যা ছাড়া সে বেঁচে থাকতে পারবে না। মার্কের ব্যাপারে তার পিতামাতা ছোটবেলায় বুঝে গিয়েছিল, যে তার সাধারণ মানুষের চেয়ে বেশি পিপাসা পায়। মার্ক এক ঘন্টাও পানি ছাড়া থাকতে পারে না। 

তাকে বিভিন্ন ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়, এই রোগ থেকে মুক্তির জন্য। ডাক্তাররা দীর্ঘদিন চেষ্টা চালানোর পরেও এ রোগের কোনো চিকিৎসা খুঁজে পাননি। তবে ডাক্তাররা তাকে কিছু ওষুধ দিয়েছে। সেসব ওষুধ খেয়েই সুস্থ থাকেন মার্ক। চিকিৎসকরা জানান, সে পানি না খেলে মারা যেতে পারে। 

ডাক্তাররাও অনেক চিন্তিত ছিল, কারণ এটি সত্যিই অনেক বিরল ঘটনা। মার্ক যত বড় হয়েছে তার পানি খাওয়ার প্রবণতা আরো বেড়েছে। এই কারণে তার ঘরে পানির বোতলের একটি স্টোরেজ রয়েছে। সে যাই করুক না কেন, তার সামনে পানি থাকা চাই। তা না হলে সে ডিহাইড্রেশনের কারণে মারা যেতে পারে। 

পানি সবসময় সঙ্গে রাখেন মার্কমার্ককে প্রতিদিন ১০০ গ্লাস (২০ লিটার) পানি পান করতে হয়। যদি সে একটু পর পর পানি পান না করে, তাহলে তার মাথা ঘোরা শুরু হয় এবং সে অজ্ঞান হয়ে যায়। এমনকি এতে তার মৃত্যুও ঘটতে পারে। মার্কের জীবন অত্যন্ত কঠিন। তবে এভাবে বেঁচে থাকার অভ্যাস করে নিয়েছেন মার্ক উববেনহর্স্ট। 

যদিও তিনি এখন অনেকটাই ভালো অবস্থায় আছেন। এই রোগের এখন পর্যন্ত কোনো চিকিৎসা নেই। কিছু ওষুধে মার্কের অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। তবে মার্কের কাহিনী আসলেই অনেক বেদনাদায়ক। মার্ক জানিয়েছেন, অ্যালকোহল খেলে তার কোনো সমস্যা হয় না। তবুও তিনি খান না। তবে তিনি প্রতিদিন তিন বোতল ওয়াইন খেতে পারেন। এটি তার উপর কোনো ধরনের প্রভাব ফেলে না।    

অতিরিক্ত পানি পানের ফলে তার মারা যাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। কারণ অতিরিক্ত পানি গ্রহণের ফলে রক্তের সোডিয়ামের মাত্রা কমে যায়। এর ফলে যে মৃত্যু হতে পারে তা প্রমাণিত। ক্যালিফোর্নিয়ায় ২০০৭ সালে, গেমিং কনসোল জয়ের প্রতিযোগিতায় তিন সন্তানের জননী এক ঘন্টায় ছয় লিটার পানি পান করার পরে মারা যান। 

সূত্র: দ্যএশিয়ানএইজ

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস