Exim Bank Ltd.
ঢাকা, রোববার ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫

পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ানক জলদস্যু

রাজ চৌধুরীডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ানক জলদস্যু
ছবি: সংগৃহীত

পেশা হিসেবে আপনাকে কোনো একটা বেছে নিলে কি বেছে নেবেন? সকলেই ধরণের উত্তর দিতে পারেন। কিন্তু এমন কেউ কি আছেন যিনি বলবেন যে ডাকাত হওয়াটাকে তিনি পেশা হিসেবে নিতে চাচ্ছেন। হয়তো কেউ চাবেন না। কিন্তু সোমালীয়রা জলদস্যুরা তা-ই করছে। পেশা হিসেবে ডাকাতি তাদের কাছে কম রোমাঞ্চকর নয়। শিঙের মতো বাঁকা সোমালিয়া দেশটি আরব সাগর ও লোহিত সাগরের পাশে অবস্থিত। এই শিঙের মতো হওয়ায় দেশটি হর্ন অব আফ্রিকা নামেও পরিচিত৷ দেশটিতে প্রায় ৩০ বছরেরও বেশি সময় যাবত ঘরোয়া অনেক ঝামেলা চলে।১৯৬০ সাল দেশটি স্বাধীনতা লাভ করলেও দেশটি নিজেদের তেমন ভাবে মেলে ধরতে পারেনি। নব্বইয়ের দশকে দেশটিতে মোহাম্মদ সাঈদ বারী সরকারের পতনের পর শুরু হয় গৃহযুদ্ধ। সে সময়ই সোমালিয়া রাষ্ট্রটি অচল হয়ে পরে। ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হতে যাওয়া সোমালিয়ায় অনেক অভাব চলতে থাকে। এর ফলে পরবর্তী দশকে এখানে জলদস্যুতার শুরু হয়।

১৬৫০ থেকে ১৭৫০ সাল পর্যন্ত ছিলো জলদস্যুতার স্বর্ণযুগ।সে সময় প্রায় সমগ্র বিশ্বই ছিলো ব্রিটিশদের অধীনে।ব্রিটিশ শাসকরা তখন নিজেদের বাণিজ্যের জন্য ব্যবহার করতো সমুদ্রপথ। সমুদ্র পথে তারা বিভিন্ন অভিযানও চালাতো। তাদের জাহাজে থাকা বিভিন্ন শ্রমিকেরা অযথাই অনেক পরিশ্রম করতো।তাদের নিজস্ব কোনো অধিকার ছিলো না। তাদের উপর অন্যায় অত্যাচার করা হতো।কাজে সামান্য ভুল হলে তাদের সমুদ্রেও ফেলে দেয়া হতো। এরকম সব অত্যাচারের প্রতিবাদ করতে অনেক নাবিক জলদস্যুতে পরিণত হয়। সোমালিয়ার জলদস্যুরাও প্রতিবাদ করতে গিয়েই ভয়ঙ্কর এই পেশায় জড়িয়ে পড়েছে। ৯০ এর দশকে যখন দেশটির সরকার পতন হয় তখন তাদের সমুদ্র উপকূলে বিভিন্ন ইউরোপীয় জাহাজ ঘুরতো এবং তাদের গতিবিধির কোনো সঠিক ঠিকানা ছিলো না।

জাহাজগুলো থেকে অনেক ব্যারেল তীরে আসতো।সেই ব্যারেলগুলোতে থাকতো অনেক তেজস্ক্রিয় পদার্থ। তেজস্ক্রিয়তায় অনেক পশুপাখি মারা যায়।মানুষরা অনেক রোগে আক্রান্ত হতে থাকে। গর্ভবতী নারীরা বিকলাঙ্গ বাচ্চা প্রসব করে। বিভিন্ন হাসপাতালের বর্জ্য ও রাসায়নিক বর্জ্যে ভরা থাকতো এই ব্যারেলগুলো। একসময় এই দেশটির উপকূল এসব ব্যারেলে ভরে যায়। এই দেশটিকে বর্জ্য ফেলার স্তুপে পরিণত করে ইউরোপের দেশগুলো। ব্যারেলে থাকা বিভিন্ন ধাতু উদাহরণস্বরূপ সীসা ক্যাডমিয়ামসহ বিভিন্ন ভারী ধাতু মানুষের অনেক ক্ষতি করে।তেজস্ক্রিয়তায় তাদের জীবন হয়ে যায় প্রায় অচল।

সোমালিয়ার মানুষদের সামুদ্রিক মাছের ভান্ডারও প্রায় ফুরিয়ে গিয়েছিলো। এর কারণ ইউরোপের অনেক জাহাজ এসে এখান থেকে বড় বড় মাছ ধরে নিয়ে চলে যেতো।এই এলাকার জেলেরা মাছ পেতো না। তাই এই জেলেরা তাদের স্পিডবোড নিয়ে এইসব মাছ ধরা জাহাজ তাড়িয়ে দেয়ার কথা ভাবে।তারা ব্যারেল এর বিরুদ্ধেও সোচ্চার হয়। জাহাজগুলো এই মাছগুলো বেআইনিভাবে ধরতো। কারণ এই উপকূলে মাছ ধরার কোনো এখতিয়ারই তাদের ছিলো না। তাদের উপর ট্যাক্স আরোপ করার কথাও চিন্তা করা হয়৷কিন্তু কিছুতেই এসবের সঙ্গে মোকাবিলা করা সম্ভব হচ্ছিলো না। তাই একবার ব্যারেল ফেলা অবস্থায় কয়েকটা জাহাজ আটকানো হয়।এভাবেই তাদের তাদের এই পেশার শুরু হয়। পরবর্তীতে তারা জাহাজ আটক করা শুরু করে এবং জাহাজের বিভিন্ন নাবিকদের আটকে তাদের থেকে মুক্তিপণ আদায় করা শুরু করে।

জলদস্যুরা নিজেদের মধ্যে একটা বড় দল তৈরি করার কথা ভাবে। এজন্য স্থানীয় জেলেরা ও একসময়ের সেনা বাহিনীর সদস্যরা মিলে আলাদা জলদস্যুদের দল বানিয়ে ফেলে। সমুদ্র নিয়ে তাদের ভালো জ্ঞান থাকায় তারা আরো ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে থাকে। আন্তর্জাতিক সমুদ্র পথে চলা জাহাজের হুমকি হয়ে উঠে এরা। তবে এখানকার বেশিরভাগ মানুষই এই জলদস্যুদের ভালো মনে করে। এর কারণ সমুদ্র প্রতিরক্ষার এটিই সবচেয়ে সেরা উপায় তাদের কাছে।জলদস্যুরাও নিজেদের নিয়ে অনেক গর্ববোধ করে। তাদের মতে, অন্যায়ের প্রতিবাদেই আজ তারা এই রাস্তা বেছে নিয়েছে। ২০০৭ সালের পর জলদস্যুতার হার আগের চেয়ে দ্বিগুণ হয়ে গিয়েছিলো।এখন আন্তর্জাতিক হস্তক্ষেপের জন্য এখন জলদস্যুতার পরিমাণ কিছুটা কমেছে। সোমালিয়ার এই জলদস্যুরা সামান্য মাছ ধরার নৌকা করেও বড় বড় জাহাজ ছিনতাই করে থাকে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
ঈশা আম্বানিকে শ্বশুরের আকাশ ছোঁয়া উপহার!
ঈশা আম্বানিকে শ্বশুরের আকাশ ছোঁয়া উপহার!
জনসম্মুখে পুরুষ নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল!
জনসম্মুখে পুরুষ নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল!
বিয়ে হতে না হতেই গর্ভবতী প্রিয়াঙ্কা!
বিয়ে হতে না হতেই গর্ভবতী প্রিয়াঙ্কা!
সানি লিওনের সঙ্গে হিরো আলম!
সানি লিওনের সঙ্গে হিরো আলম!
বই পড়ানো ইউসুফ এখন দুদকে!
বই পড়ানো ইউসুফ এখন দুদকে!
ক্যান্সার শনাক্তে বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
ক্যান্সার শনাক্তে বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
গিন্নিকে বিয়ে করলেন কপিল শর্মা
গিন্নিকে বিয়ে করলেন কপিল শর্মা
২০১৯ নিয়ে অন্ধ নারীর ভয়ঙ্কর ভবিষ্যদ্বাণী!
২০১৯ নিয়ে অন্ধ নারীর ভয়ঙ্কর ভবিষ্যদ্বাণী!
আইপিএলের চূড়ান্ত নিলামে দুই বাংলাদেশি
আইপিএলের চূড়ান্ত নিলামে দুই বাংলাদেশি
সোমবার রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ছেন এরশাদ
সোমবার রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ছেন এরশাদ
২ তারিখ খালেদা জিয়াকে বের করে আনবো
২ তারিখ খালেদা জিয়াকে বের করে আনবো
বিবাহবার্ষিকীতে শাওনের আবেগঘন স্ট্যাটাস
বিবাহবার্ষিকীতে শাওনের আবেগঘন স্ট্যাটাস
বিএনপির বিরুদ্ধে লড়বেন হিরো আলম
বিএনপির বিরুদ্ধে লড়বেন হিরো আলম
শাকিবের সঙ্গে প্রেম বিষয়ে মুখ খুললেন রোদেলা
শাকিবের সঙ্গে প্রেম বিষয়ে মুখ খুললেন রোদেলা
৮৩ জিবি পর্ন ভিডিও উদ্ধার, কারাদণ্ড
৮৩ জিবি পর্ন ভিডিও উদ্ধার, কারাদণ্ড
নৌকার প্রচারণায় একঝাঁক তারকা
নৌকার প্রচারণায় একঝাঁক তারকা
ক্ষমতায় গেলে বেকার যুবকদের ভাতা দেয়া হবে : হিরো আলম
ক্ষমতায় গেলে বেকার যুবকদের ভাতা দেয়া হবে : হিরো আলম
যাদের টাকায় নির্বাচন করবেন হিরো আলম
যাদের টাকায় নির্বাচন করবেন হিরো আলম
কাতলায় সাবধান! হুঁশিয়ারি গবেষকদের
কাতলায় সাবধান! হুঁশিয়ারি গবেষকদের
কুমিল্লায় বিএনপির মিছিলে হামলা, অর্ধশতাধিক আহত
কুমিল্লায় বিএনপির মিছিলে হামলা, অর্ধশতাধিক আহত
শিরোনাম :
বিনম্র শ্রদ্ধার সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের স্মরণ করছে পুরো জাতি বিনম্র শ্রদ্ধার সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের স্মরণ করছে পুরো জাতি সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা