পাহাড়ি কাপড় বুননে বাঙালির ঐতিহ্য

ঢাকা, সোমবার   ৩০ মার্চ ২০২০,   চৈত্র ১৬ ১৪২৬,   ০৫ শা'বান ১৪৪১

Akash

পাহাড়ি কাপড় বুননে বাঙালির ঐতিহ্য

আঁখি আক্তার ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫৩ ১১ মার্চ ২০২০  

পাহাড়ি নারীর কাপড় বুনন

পাহাড়ি নারীর কাপড় বুনন

বাংলাদেশে ক্ষুদ্রনৃগোষ্ঠীদের পাহাড়েই বাস। নিজেদের আলাদা এক পৃথিবী বানিয়েছেন তারা। যেখানে তাদের আচার-অনুষ্ঠান, রীতিনীতি, সংস্কৃতি, খাবার, ভাষা, আথিয়তা, পোশাক ইত্যাদি সবই ভিন্ন।

পাহাড়ি নারীদের উৎসব পাহাড়িরা খুব পরিশ্রমী। তারা নিজেদের কাজ নিজেরা করতেই ভালোবাসেন। এমনকি তারা নিজের এবং পরিবারের সবার কাপড় নিজেরাই বুনন করেন। বুননকাজের মূল অনুষঙ্গ নানা রঙের সুতা তারা দোকান থেকে সংগ্রহ করেন। তবে এখন এই বুননের বিস্তৃতি ঘটেছে। পাহাড়িরা এখন শুধু নিজেদের জন্যই নয়, বরং অন্যদের জন্যও কাপড় বুনন করেন। বলা চলে, বুনন করা কাপড় বিক্রি করেই অনেকে জীবিকা নির্বাহ করেন।

পাহাড়ি নারীর কাপড় বুননখাগড়াছড়িতে এই বুননের কাজ বেশি দেখা যায়। অনেক পর্যটকও তাদের সংস্কৃতির ধরণ অনুযায়ী পোশাক ক্রয় করেন। এতে করে বাংলাদেশের ঐতিহ্যও বিকশিত হয়। আর তাদের সংস্কৃতি সম্পর্কেও সবাই জানতে পারে। তেমনিভাবে কাপড় বুনা তাদের পেশা এবং শখ দুটোই। এতে বাঙালির ঐতিহ্যও তুলে ধরেন তারা।

পাহাড়ি নারীর কাপড় বুনন বুননের জন্য সুতা প্রয়োজন। তাইতো সুতা কেনার জন্য দোকানে ভিড় জমে নারীদের। কোনো নির্দিষ্ট বয়স নয়, নানা বয়সের পাহাড়ি নারীদের দেখা যায় সুতার দোকানে। পছন্দমতো রঙ ও সুতা বাছাই করেন নারীরা। দর কষাকষিও চলে দোকানদারের সঙ্গে। এ বিষয়ে পাহাড়ি নারীরা বেশ পটু। অবশেষে দাম মিলিয়ে পছন্দের রঙের সুতা কিনেই বাড়ি ফেরেন তারা।

কাপড় বুননের সুতা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পাহাড়িদের বোনা কাপড়গুলোর চাহিদাও বাড়তে থাকে। তাদের এই বুনন ছড়িয়ে পড়ে দেশের অন্য অঞ্চলেও। তাইতো বুননের কাজও বেড়ে যায়। কাপড় বোনার আগে প্রথম কাজ হচ্ছে সুতা ঠিক করে নেয়া। নির্দিষ্ট আকারে সুতাগুলো ভাজ করে নিতে হয়। এর মধ্যে ছিড়ে যাওয়া সুতাগুলো আঙুলের সাহায্যে নেড়ে নেড়ে খুঁজে বাদ দেয়া হয়। এভাই কাপড় বোনার জন্য সুতা প্রস্তুত করা হয়।

পাহাড়ি নারীর কাপড় বুননএবার হচ্ছে কাপড় বুননের জন্য সুতাগাঁথুনির কাজ। মনের মতো রঙের সুতা বেছে নেয়া তারা। নানা রঙের সুতাগুলো খুব সুন্দর ভাবে একের পর এক সাজিয়ে নেয়। অনেক সময় এক রঙেই সম্পূর্ণ কাপড় বুনে তারা। যখন যেমন চাহিদা তখন তেমন কাপড়ই বুনে তারা। এভাবেই কাপড় বুননের একের পর এক ধাপ শেষ করে তারা। একসময় কাপড় বোনার কাজ শেষ হয়।

পাহাড়ি নারীর কাপড় বুননপার্বত্য এলাকার বিভিন্ন অঞ্চলে দিনের বড় একটি সময় চলে কাপড় বুননের কাজ। সংসারের যাবতীয় কাজের পাশাপাশি নারীরা কাপড় বুননের কাজ করেন। পুরুষরাও তাদের কাজে সাহায্য করে। এভাবেই চলতে থাকে বাংলাদেশের ক্ষুদ্রনৃগোষ্ঠী পাহাড়িদের জীবন ধারা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ