Alexa পাতে রাখুন চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী ‘মধুভাত’

ঢাকা, শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯,   কার্তিক ৩০ ১৪২৬,   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

পাতে রাখুন চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী ‘মধুভাত’

আঁখি আক্তার ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫৯ ৫ নভেম্বর ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

কতরকম খাবারই নিত্যদিন খাওয়া হয়। কিন্তু কখনো চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মধুভাত খেয়েছেন কি? খেতে অসাধারণ এই খাবারটি অনায়াসেই মন কেড়ে নিবে।

খুব অল্প কিছু উপকরণেই তৈরি করা হয় এই মধুভাত। এটি স্বাস্থ্যের জন্যও বেশ উপকারি। তাই দেরি না আজই পাতে সাজান সুস্বাদু মধুভাত। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক রেসিপিটি-

উপকরণ: বিনি চাল ১কেজি, জালা চালের গুঁড়া আধা কাপ, নারিকেল কোড়ানো ১কাপ, লবণ পরিমাণ মতো, তরল দুধ ২ কাপ, চিনি ৪ টেবিল চামচ, কোড়ানো নারকেল আধা কাপ।

প্রণালী: প্রথমেই নারকেল ও চিনি দিয়ে দুধ গরম করে নিন। বলক আসলে নামিয়ে নিন। এবার ভাত রান্না করুন। বিনি চাল ভালো করে ধুয়ে নিন। তারপর হাতের আঙুলের তিন দাগ মেপে পানি দিন বা এক কেজি ভাত রান্না করার জন্য যে পরিমাণ লাগে তা দিন। এবার লবণ ও নারিকেল কোরানো দিয়ে চুলায় জ্বাল দিন। বলক আসলে নেড়ে দিন। চুলার আচঁ মিড়িয়াম করে ঢেকে রান্না করুন ভাত হয়ে যাওয়া পর্যন্ত। ভাত হয়েছে কিনা একটি ভাত টিপে দেখুন। ভাত হয়ে গেলে নামিয়ে নিন।

জালা চালের গুঁড়া আগেই করে রাখুন। হালকা গরম করে রাখা দুধ পাশে রাখুন। এখন বড় চওড়া একটি পাত্র নিন। পাত্রটি ধুয়ে পানি শুকিয়ে চুলায় দিন। এবার এতে প্রথমে রান্না করা বিনি ভাত ৩-৪ চামচ নিন, উপরে জালা চাউলের মিহি গুঁড়া এক মুঠো ছিটিয়ে দিন। এখন ডাল ঘুটুনি দিয়ে ভাল করে ম্যাশ করে নিন।

এভাবে ভাত ও জালা চালের গুঁড়া পর্যায়ক্রমে দিয়ে ম্যাশ করবেন। সব ভাত ম্যাশ করা হয়ে গেলে, আরেকবার ভাল করে ঘুটে নিন। এবার করে রাখা কুসুম দুধ দিয়ে আবার ঘুটে নিন। যখন দেখবেন ভাত থকথকে আরো দুধ দেয়া প্রয়োজন, তখন আরো ১ থেকে ২ কাপ দুধ কুসুম গরম করে মেশান। ভুলেও ঠাণ্ডা দুধ বা পানি দিবেন না।   

এবার সব শেষে ঘুটে নিয়ে ভারি ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখুন গরম কোনো জায়গায়। এটি কোনো ধরা ছোয়া যাবে না ১০ থেকে ১২ ঘন্টার আগে। অনেকটা দই বসানোর মতো। এরপর ৩ ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা পরিবেশন করুন মজাদার মধুভাত। প্রচণ্ড গরমে এই ভাত দারুণ উপাদেয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ