পাতালপুরী থেকে মর্গে

ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৬,   ১৮ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

পাতালপুরী থেকে মর্গে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ২১:০১ ২ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ২১:৪৪ ২ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

দীর্ঘ ১৮ মাস পর ইংল্যান্ড প্রবাসী আব্দুল গফুরের মরদেহ মাটির নিচ থেকে তোলা হয়েছে।

রোববার বিকেলে আদালতের নির্দেশে সিলেট ডিসি কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খৃষ্টফার হিমেল রিছিলের উপস্থিতিতে গফুরের মরদেহ তোলা হয়।

মরদেহের কঙ্কালসার তুলে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকায় সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের মর্তুজ আলীর ছেলে আবুল কালাম আজাদ, তার জামাতা কুমিল্লার হোমনার আব্দুল কুদ্দুছের ছেলে আনোয়ার হোসেন, জৈন্তাপুরের মো. ইদ্রিছ আলীর ছেলে মো. জুনাব আলীকে আটক করা হয়। তাদের জবানবন্দিতে মরদেহের সন্ধান পাওয়া যায়।

মরদেহ মাটির নিচ থেকে তোলার সময় জৈন্তাপুরের সহকারী ভূমি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুনতাসির হাসান পলাশ, জগন্নাথপুর থানার সেকেন্ড অফিসার মো. হাবিবুর রহমানসহ জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খৃষ্টফার হিমেল রিছিল বলেন, গ্রেফতারকৃতরা আদলতে ১৬৪ ধারায় গফুর হত্যার দায় স্বীকার করে। তাদের তথ্যের ভিত্তিতে আদালতের নির্দেশে মরদেহের অংশ বিশেষ মাটি চাপার স্থান থেকে তোলা হয়।

২০১৭ সালের ৮ মে ইংল্যান্ড প্রবাসী আব্দুল গফুর দেশে অবস্থান করার সময় নিখোঁজ হন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ

 

Best Electronics