Alexa ‘পাট পণ্যের চাহিদা দেশে-বিদেশে ক্রমেই বাড়ছে’

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ১৪ ১৪২৬,   ০৩ রজব ১৪৪১

Akash

‘পাট পণ্যের চাহিদা দেশে-বিদেশে ক্রমেই বাড়ছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৩৭ ২৮ জানুয়ারি ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেছেন, সারাদেশে পাটের বহুমুখী ব্যবহারের মাধ্যমে সোনালী আঁশ পাটের হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

তিনি বলেন, উচ্চ ফলনশীল জাতের পাট চাষের ফলে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে দেশে ৭৩ লাখ ১৪ হাজার বেল পাট উৎপাদন হয়েছে। পাট দিয়ে ২৮১ রকমের পণ্য উৎপাদন করা হয়। এ পণ্যের চাহিদা দেশে-বিদেশে ক্রমেই বাড়ছে।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে তরিকত ফেডারেশনের সদস্য আনোয়ার হোসেন খানের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি সংসদকে এ তথ্য জানান।

গোলাম দস্তগীর গাজী আরো বলেন, সরকারি বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠানে পাটের বহুমূখী ব্যবহারের ফলে পাট পণ্য আজ দেশ-বিদেশে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বিদেশে পাট পণ্যের চাহিদা ক্রমেই বাড়ছে। প্রতিবছর ৬ মার্চকে জাতীয় পাট দিবস হিসেবে পালন করার ফলে পাট উৎপাদনকারীদের মধ্যে বিশেষ অনুপ্রেরণা সৃষ্টি হয়েছে।

সরকারি দলের সদস্য মো. শহীদুজ্জামান সরকারের অপর এক প্রশ্নের জবাবে পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, দেশ-বিদেশর চাহিদা অনুযায়ী পাট দিয়ে ২৮১ রকমের পণ্য উৎপাদন করা হয়।

সরকারি দলের সদস্য মো. মোজাফফর হোসেনের অপর এক প্রশ্নের জবাবে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী বলেন, সরকার রেশম চাষের উন্নয়নে ব্যাপক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। চীন ও ভারত থেকে উন্নতমানের রেশম কীট এবং উন্নত তুঁতজাত আমদানির উদ্যোগ গ্রহণ করায় রেশম উৎপাদন বাড়ছে। ১০ হাজার রেশম চাষীকে সামাজিক বেষ্টনীর আওতায় আনার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। পাট পণ্যের ন্যায় রেশম থেকে উৎপাদিত পণ্যের উপর থেকেও ভ্যাটমুক্ত করার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে