Alexa বিদ্যুতের খুঁটিতে চড়ুই পাখি, এগিয়ে এল ফায়ার সার্ভিস, দেখুন ভিডিওতে

ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২০,   মাঘ ১১ ১৪২৬,   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

বিদ্যুতের খুঁটিতে চড়ুই পাখি, এগিয়ে এল ফায়ার সার্ভিস, দেখুন ভিডিওতে

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৪৪ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ২১:৩০ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

চট্টগ্রামের অক্সিজেনে সেই সকাল থেকে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে পা জড়িয়ে আটকে ছিল চড়ুই পাখিটি। প্রাণপণ চেষ্টা করছিল সেখান থেকে ছোটার জন্য, কিন্তু কিছুতেই ছুটতে পারছিল না। পথচারীরা একপলক দেখেই যে যার কাজে ছুট।

বিকেলে বাসার বারান্দা থেকে হঠাৎ চড়ুই পাখিটির মরণপণ ছটফটানি চোখে পড়ে এক তরুণের। সঙ্গে সঙ্গেই তিনি ছুটে গিয়ে আশেপাশের অনেককে অনুরোধ জানালেন, পাখিটিকে বাঁচানোর জন্য। সেখানেও বিফল। উপায় না দেখে ফায়ার সার্ভিসে ফোন করে জানালেন বিস্তারিত।

তরুণকে বিস্মিত করে দিয়ে কিছুক্ষণের মধ্যেই গাড়ি নিয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ছুটে এলেন ঘটনাস্থলে। পথচারীরা থমকে দাঁড়ালেন। উৎসুক লোক জড়ো হয়ে গেলেন ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি ঘিরে। কিছুক্ষণের মধ্যেই বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে দেয়া হল। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা অনেকক্ষণ চেষ্টার পর সেই চড়ুই পাখিটিকে ফিরিয়ে আনলেন নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে। পাখিটি মুক্তি পেল দিনভর প্রতি মুহূর্তের অসহনীয় যন্ত্রণা থেকে। একটি পাখির জন্য ফায়ার সার্ভিসের এমন প্রচেষ্টা প্রশংসা কুড়িয়েছে সাধারণ মানুষের।

এমন অভূতপূর্ব ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের অক্সিজেন শীতল ঝরনা আবাসিক এলাকায়।

যে তরুণের প্রচেষ্টায় চড়ুই পাখিটি নতুন জীবন পেল, শাহেদুল ইসলাম নামের সেই তরুণ ফেসবুকে লিখেছেন, ‘বিকেলে হঠাৎ বারান্দায় এসে দেখলাম একটি চড়ুই পাখি ইলেকট্রিকের খাম্বার সঙ্গে পা জড়িয়ে আটকে আছে। প্রাণপণ চেষ্টা করছে ছোটার জন্য, কিন্তু তবুও ছুটতে পারতেছে না। আমি সঙ্গে সঙ্গে নিচে গিয়ে মানুষদের কাছ থেকে খোঁজ নিলাম— পাখিটি নাকি সকাল থেকেই এভাবে আটকে পড়ে আছে, ছুটতে পারছে না। 

শাহেদুল লিখেছেন, বাঁচার জন্য পাখিটির ছোটাছুটি দেখে নিজের বুকেই যেন ধরফর করছিল! অনেককে উদ্ধারের জন্য রিকোয়েস্ট করেও কোনো সাহায্য পেলাম না। সামান্য একটি চড়ুই পাখি বলে পাত্তা দিল না। কী এমন যায় আসে তাদের যেন এমন ভাব। শেষমেষ বায়েজিদ ফায়ার সার্ভিসে কল দিলাম এবং তাদের উদ্ধার করার জন্য এলাকায় আসতে অনুরোধ করলাম। অবাক হলাম দেখে— কিছুক্ষণ পরেই ফায়ার সার্ভিস গাড়ি নিয়ে হাজির। দৌড়ে গিয়ে তাদেরকে গলির রাস্তাটি দেখালাম। আওয়াজ শুনে তখন অনেকেই জড়ো হয়ে যায়। সবাই আশা করছিল পাখিটি যাতে বেঁচে যায়। 

শাহেদুল ইসলাম লিখেছেন, তারপর বিদ্যুৎ অফিসে বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে অনেক কষ্টের অভিযানের পর চড়ুই পাখিটি উদ্ধার হল এবং সেটিকে জীবিত বাঁচানো গেল। পাখিটি ছোটার পরই সবার হাতে করতালি। আমি কী বলে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের ধন্যবাদ দেবো— ভাষা খুঁজে পাচ্ছিলাম না। তারা আমার নাম জিজ্ঞেস করল। তাদের হ্যান্ডশেক করে আমি রাস্তা পার হতে সাহায্য করলাম। 

ফায়ার সার্ভিসকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, একটা পাখিকে বাঁচানোর জন্য তারা যে মনোভাব দেখিয়েছেন, তা সত্যিই অতুলনীয়। তাদের প্রতি সাধারণ মানুষেরও আস্থা ও ভালোবাসা দেখলাম আজ। 

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে