Alexa পাকিস্তানকে ‘ডার্ক গ্রে’ তালিকায় নামিয়ে দেয়ার হুমকি

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২৭ ১৪২৬,   ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১

সন্ত্রাসবাদে অর্থায়নের অভিযোগ

পাকিস্তানকে ‘ডার্ক গ্রে’ তালিকায় নামিয়ে দেয়ার হুমকি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:২৭ ১৫ অক্টোবর ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সন্ত্রাসবাদীদের আশ্রয় ও অর্থের জোগান বন্ধে অনেকটাই ব্যার্থ হয়েছে পাকিস্তান, আর এ কারণে দেশটিকে "গাঢ় ধূসর" (Grey List) তালিকায় নামিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদে অর্থ জোগানদাতাদের পর্যবেক্ষক সংস্থা ‘ফিন্যান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স (এফএটিএফ)’। 

এফএটিএফে’র বৈঠকে উপস্থিত কর্মকর্তারা বলেন, পাকিস্তানের সন্ত্রাস দমনে পর্যাপ্ত কাজ না করার কারণে অন্যান্য সদস্য দেশগুলো থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে। কেননা দেশটি সন্ত্রাসদমনে প্রয়োজনীয় ২৭টি পদক্ষেপের মধ্যে মাত্র ছয়টি পূরণ করেছে। বিষয়টি নিয়ে যথাযথ আলোচনার পর আগামী ১৮ অক্টোবর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এফএটিএফের নিয়ম অনুসারে, ‘গ্রে’ এবং ‘ব্ল্যাক’ অর্থাৎ ‘ধূসর’ এবং ‘কালো’ তালিকার মধ্যবর্তী যে পর্যায় রয়েছে তা ''ডার্ক গ্রে'' বা "গাঢ় ধূসর" হিসাবে পরিচিত।

এফটিএফে’র কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ‘ডার্ক গ্রে’ বা ‘গাঢ় ধূসর’-এর অর্থ হল ওই দেশটির প্রতি একটি কড়া সতর্কতা জারি করা। পাকিস্তানকে কালো দেশের তালিকাভুক্ত করার আগে এটাই শেষ সতর্কবার্তা।

১৯৮৯ সালে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে নজর রাখার জন্য এফএটিএফ প্রতিষ্ঠা করা হয়। এটি আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদে বিভিন্ন দেশের অর্থ জোগান এবং সন্ত্রাস সংক্রান্ত অন্যান্য হুমকি প্রতিরোধ করার জন্য প্রতিষ্ঠিত হয়।

গত বছরের জুনে প্যারিসের এই নজরদারি সংস্থাটি পাকিস্তানকে ধূসর তালিকাভুক্ত করে। ২০১৯ সালের অক্টোবরের মধ্যে সন্ত্রাসবাদ রুখতে ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার জন্য ওই দেশকে সময় দেয়া হয়। সেইসঙ্গে এই সতর্কবার্তাও দেয়া হয় যে পাকিস্তান প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না নিতে পারলে তারাও ইরান এবং উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে কালো তালিকাভুক্ত হবে।

এক্ষেত্রে পাকিস্তান যদি গাঢ় ধূসর তালিকার অন্তর্ভুক্ত হয় তাহলে ওই দেশের পক্ষে আইএমএফ, বিশ্বব্যাংক এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে আর্থিক সহায়তা পাওয়া খুবই কঠিন হয়ে পড়বে। এর ফলে পাকিস্তানের বর্তমান আর্থিক অবস্থা আরো অনিশ্চিত হয়ে পড়বে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী