পশুটা দাঁড়িয়ে আছে, মানুষ হেঁটে যাচ্ছে

ঢাকা, সোমবার   ৩০ মার্চ ২০২০,   চৈত্র ১৭ ১৪২৬,   ০৬ শা'বান ১৪৪১

Akash

পশুটা দাঁড়িয়ে আছে, মানুষ হেঁটে যাচ্ছে

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:৫২ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

রেলক্রসিংয়ে ঝুঁকিপূর্ণ পারাপার, এ আর নতুন কী! রক্ষিত রেলক্রসিংয়েও নিয়ম ভেঙে রাস্তা পার হতে দেখা যায়। সম্প্রতি একটি ছবি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বেশ আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে- রেলক্রসিং ব্যারিকেডের সামনে একটি গরু দাঁড়িয়ে আছে, অথচ নিয়মকে তোয়াক্কা না করে এক ব্যক্তি বাইসাইকেল নিয়ে রাস্তা পার হচ্ছেন।

ট্রেন দেখেই বোঝা যাচ্ছে ছবিটি ভারতের। তবে বাংলাদেশেও এমন অসচেতন মানুষের অভাব নেই। তাই দিন দিনে দুর্ঘটনা বাড়ছে। অনেকটা নিয়মিতই ট্রেনে কাটা পড়ে কিংবা ক্রসিংয়ে দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। এর জন্য মানুষের অসচেতনতাই বেশি দায়ী। বেসরকারি সংস্থা রেলপথ জাতীয় কমিটির হিসেবে, ২০১৩ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত রেলক্রসিংয়ে দুর্ঘটনায় প্রাণ গেছে ৯৫০জনের।

রাজধানীর ব্যস্ততম এলাকা সায়দাবাদে গিয়ে দেখা যায়, ট্রেন আসায় ব্যারিকেড ফেলে রাস্তা আটকে দিয়েছেন। অন্যপ্রান্তেও ব্যারিকেড ফেলেছেন আরেক গেটম্যান। দু’পাশে চার লেনে গাড়ি থেমে অপেক্ষা করছে ট্রেনটি চলে যাওয়ার জন্য। এমন সময় এক তরুণ মোটরসাইকেলসহ ব্যারিকেড ডিঙিয়ে পার হতে চেষ্টা করলো।

বাঁশি বাজিয়ে সতর্ক করলেন গেটম্যান। মোটরসাইকেল আরোহী যেন কানেই তুলল না গেটম্যানের সতর্ক সংকেত। গেটম্যান দৌড়ে এসে আটকে দিয়ে বলল, ‘একটু পরে যান, ট্রেন চলে এসেছে।’ কিছু বুঝে ওঠার আগেই অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করল মোটরসাইকেল আরোহী। প্রায় ট্রেনের সামনে দিয়েই মোটরসাইকেল হাঁকিয়ে চলে গেল ওই তরুণ। এর মধ্যে মানুষজনের আসা-যাওয়া তো আছেই। রাজধানীর প্রতিটি রেলক্রসিংয়ের নিয়মিত চিত্র এটি।

হরহামেশাই বাসের সঙ্গে ট্রাকের বা অন্য বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে অনেকের মৃত্যুর খবর সংবাদপত্রে দেখা যায়। ইদানীং রেলক্রসিংও মরণফাঁদ হিসেবে তৈরি হয়েছে। গেটম্যানের গাফিলতি আর অনেক সময় যাত্রীদের অসচেতনতার জন্য দ্রুত রেলক্রসিং পার হতে গিয়ে এসব দুর্ঘটনা ঘটে। সবারই সাবধান হওয়া উচিত এ বিষয়ে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে