ঢাকা, শুক্রবার   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯,   ফাল্গুন ৯ ১৪২৫,   ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪০

পবিত্র হজ ও ওমরায় সাফা-মারওয়া ‘সাঈ’

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: ১৩:১৪ ১০ আগস্ট ২০১৮   আপডেট: ১৫:১৭ ১০ আগস্ট ২০১৮

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

পবিত্র হজ ও ওমরাহ পালনকারীদের জন্য সাফা মারওয়া পাহাড়দ্বয়ের সাঈ সম্পন্ন করা আবশ্যক এবং এতে রয়েছে সুনির্দিষ্ট নিয়ম ও পদ্ধতি।

সাফা-মারওয়া পাহাড়দ্বয়ে সাঈ করা মহান আল্লাহ তাআলার অনন্য নিদর্শনসমূহের অন্যতম। বিশ্ব মুসলিম এ স্থানে ৭ চক্কর দৌড়ানোর মাধ্যমে সাঈ সম্পন্ন করবে। 

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর প্রদর্শিত পদ্ধতিতেই সাফা ও মারওয়া সাঈ সম্পন্ন করতে হবে। নতুবা সাঈ সম্পন্ন হবে না। আর সঠিক নিয়ম মতো সাঈ আদায় না হলে ওয়াজিব আদায় হবে না। ওয়াজিব ভঙ্গ হলে কাফফারা স্বরূপ ‘দম বা কোরবানি আবশ্যক।

যেভাবে সাঈ শুরু করতে হবে:

হজ ও ওমরা পালনকারীদেরকে তাওয়াফের পর নামাজ আদায় করে ‘বাবুস সাফা’ দিয়ে সাফা পাহাড়ে আরোহন করতে হবে। সাফা পাহাড়ে ওঠে কাবার দিকে মুখ করে উভয় হাত কাঁধ পর্যন্ত তুলে এ দোয়া করা-

أَبْدَأُ بِمَا بَدَأ اللهُ بِهِ اِنَّ الصَّفَا وَ الْمَرْوَةَ مِنْ شَعَائِرِ اللهِ

উচ্চারণ : আবদাউ বিমা বাদাআল্লাহু বিহি ইন্নাস সাফা ওয়াল মারওয়াতা মিন শাআইরিল্লাহি’

অ:পর ৩ বার হামদ ও ছানা পাঠ করা। উচ্চস্বরে তাকবির ও তাহলিল পড়া-

اَللهُ اَكْبَر – لَا اِلَهَ اِلَّا اللهُ وَحْدَهُ لَا شَرِيْكَ لَهُ لَهُ الْمُلْكُ وَ لَهُ الْحَمْدُ وَ هُوَ عَلَى كُلِّ شَيْءٍ قَدِيْر
لَا اِلَهَ اِلَّا اللهُ وَحْدَهُ اَنْجَزَ وَعْدَهُ وَ نَصَرَ عَبْدَهُ وَ هَزَمَ الْاَحْزَابَ وَحْدَهُ

উচ্চারণ : আল্লাহু আকবার। লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহদাহু লা শারিকা লাহু, লাহুল মুলকু ওয়া লাহুল হামদু ওয়া হুয়া আলা কুল্লি শাইয়িং কাদির। লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহদাহু আনজাযা ওয়াদাহু, ওয়া নাসারা আবদাহু, ওয়া হাযামাল আহযাবা ওয়াহদাহু’
তারপর দুরুদ পাঠ করা এবং নিজের জন্য প্রয়োজনীয় দোয়া করে সাফা পাহাড় থেকে মারওয়া পাহাড়ের দিকে চলতে শুরু করা।

মনে রাখতে হবে:

সাফা-মারওয়া পাহাড়ের মধ্যবর্তী সবুজ চিহ্নিত স্থান পুরুষরা দৌড়ে অতিক্রম করবে আর নারীরা দৌড়াবে না। লক্ষ্য রাখতে হবে, সাফা-মারওয়ায় এত দ্রুত অতিক্রম করা যাবে না যে, সঙ্গে কোনো নারী সঙ্গী থাকলে যেন হারিয়ে যায়।

মারওয়া পাহাড়ে গিয়েও সাফা পাহাড়ের মতো হামদ ছানা, দরূদ ও দোয়া করে পুনরায় সাফা পাহাড়ের দিকে রওয়ানা করা। এভাবে সাফা ও মারওয়া পাহাড়ের মধ্যে ৭ চক্কর দৌড়ানোর মাধ্যমে সাঈ সম্পন্ন করা।

সবুজ বাতি চিহ্নিত স্থানে এ দোয়া:

আর সবুজ বাতি চিহ্নিত নির্ধারিত স্থানটি দ্রুততার সঙ্গে অতিক্রম করার সময় এ দোয়াটি পড়া-

رَبِّى اغْفِرْ وَارْحَمْ اَنتَ الْاَعَزُّ وَ الْاَكْرَام

উচ্চারণ : ‘রাব্বিগফির ওয়ারহাম আনতাল আআ’যযু ওয়াল আকরাম।’

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে পবিত্র হজ ও ওমরা পালনে সাফা-মারওয়ার প্রতিটি চক্কর যথাযথভাবে আদায় করার তাওফিক দান করুন। আল্লাহুম্মা আমিন।

আরো পড়ুন>>> জুমআর দিনে করণীয়

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে