পদ্মার বুকে তীব্র স্রোত,যাত্রীদের ভোগান্তি

ঢাকা, শুক্রবার   ২১ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৭ ১৪২৬,   ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

পদ্মার বুকে তীব্র স্রোত,যাত্রীদের ভোগান্তি

 প্রকাশিত: ১৩:১৯ ২১ জুলাই ২০১৮   আপডেট: ১৫:৪৯ ২১ জুলাই ২০১৮

রাজবাড়ী

রাজবাড়ী

পদ্মার বুকে তীব্র স্রোত। এ স্রোতের কারণে বাধার মুখে পড়েছে ফেরি ও নৌযান চলাচল। সড়কে আটকে আছে কাচামালবাহী ট্রাক। যাত্রীবাহী বাসও সটান দাড়িয়ে আছে। কেউবা নামছে, কেউবা বাসের সিটে বসেই ঝিমুচ্ছে।

শনিবার দুপুর পর্যন্ত দৌলতদিয়া জিরো পয়েন্ট থেকে ইউপি পর্যন্ত সাড়ে তিন কিলোমিটার এলাকা। দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে ফেরি চলাচল বাধার মুখে পড়ায় এ ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন যাত্রীসহ সাধারণ মানুষ।

বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ বর্তমানে এই রুটে ১৬ টি ফেরি চলাচল করার কথা বললেও মূলত ফেরি চলাচল করছে ১৩ টি।

শনিবার সকালে কথা হয় বাসচালক হাবিবের সঙ্গে। তিনি হানিফ পরিবহনের চালক। তিনি বলেন- নদীতে তীব্র স্রোত থাকায় স্বাভাবিকের চেয়ে দ্বিগুণ সময় লাগছে নদী পার হতে। এদিকে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সিরিয়াল মেনে পারাপারে নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে।

সুমন মিয়া নামে এক যাত্রী বলেন- দৌলতদিয়া ঘাটে ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থেকে প্রচণ্ড গরমে খুব কষ্ট হচ্ছে। এভাবে হাজার হাজার যাত্রী বিপদে বসে থাকলেও কর্তৃপক্ষ জরুরি কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করছে না। কখন ফেরির নাগাল পাওয়া যাবে তাও কেউ বলতে পারছে না। নদীর স্রোতের কারণে দ্বিগুণ সময় লাগছে। বিকল ফেরিগুলো মেরামত করা হচ্ছে না।

দৌলতদিয়া ঘাটে কর্মরত ট্রাফিক সার্জেন্ট শামীম হাসান জানান,ফেরি সঙ্কেট আছে। তাছাড়াও নদীর স্রোতের কারণে বাধার মুখে পড়েছে ফেরি চলাচল। ঘাটে চাপ পড়ছে যাত্রী এবং বাসের।  এসপির নির্দেশে নিয়ম মেনে সিরিয়াল অনুযায়ী পারাপার করা হচ্ছে।

তবে ফেরি সঙ্কটের কথা স্বীকার করতে নারাজ বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক রুহুল আমীন। তিনি জানান এই রুটে বর্তমানে ১৬ টি ফেরি চলাচল করছে। নদীতে যে স্রোত আছে তাতেও নৌপারাপারে তেমন সমস্যা হচ্ছে না।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম