পটুয়াখালীতে বাস মালিক পক্ষের সংঘর্ষ, বাস চলাচল বন্ধ

ঢাকা, সোমবার   ১৭ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৫ ১৪২৬,   ১২ শাওয়াল ১৪৪০

পটুয়াখালীতে বাস মালিক পক্ষের সংঘর্ষ, বাস চলাচল বন্ধ

পটুয়াখালী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৪:৩৮ ২২ মে ২০১৯   আপডেট: ০৮:২৬ ২২ মে ২০১৯

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

পটুয়াখালী মিনিবাস মালিক সমিতির দ্বন্দ্ব ও সংর্ঘষের ঘটনায় পটুয়াখালী-বরিশালসহ অভ্যন্তরীণ সব রুটের বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ফলে দূর-দূরান্ত থেকে বিভিন্ন গন্তব্যে যাওয়া যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে পটুয়াখালী বাস টার্মিনালে এ সংর্ঘষের ঘটনা ঘটলে বাস চলাচল বন্ধের ঘোষণা দেয় পটুয়াখালী মিনিবাস মালিক সমিতি।

সংর্ঘষে উভয় পক্ষের ১০ থেকে ১৫ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্য ছয়জন পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে পরবর্তী সংঘাত এড়াতে পটুয়াখালী বাস টার্মিনালে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। 

সোমবার পটুয়াখালী মিনিবাস মালিক পক্ষের সংখ্যাগরিষ্ঠরা সম্মিলিত হয়ে পটুয়াখালী মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি মো. রিয়াজ মৃধা ও সাধরণ সম্পাদক গোলাম মাওলা দুলু মৃধার বিরুদ্ধে দুর্নীতিসহ একাধিক অভিযোগে এনে সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বর্তমান সভাপতি ও সম্পাদক অবৈধ কমিটির উল্লেখিত পদে আসীন হয়ে সমিতির কোটি কোটি টাকা লোপাটসহ চাঁদাবাজি চালিয়ে আসছেন। এ নিয়ে মালিক পক্ষের সংখ্যাগরিষ্ঠরা একাধিকবার প্রতিবাদ করেও কোনো লাভ হয়নি। 

সংবাদ সম্মেলনের জেরে সোমবার রাতে সভাপতির ছোটভাই সোহাগ মৃধার সঙ্গে প্রতিপক্ষ বাস মালিক পক্ষের সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই রাতেই সদর থানায় একটি জিডিও করা হয়।  

সভাপতি রিয়াজ মৃধা অভিযোগ করে বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে বাস মালিক বাদশা মৃধা, মিজান ওরফে জামাই মিজান,শামীম মৃধাসহ একটি সন্ত্রাসী বাহিনীর সহায়তা নিয়ে পটুয়াখালী বাস টার্মিনালের কয়েকটি কাউন্টারে হামলা এবং ছিনতাই চালায়। এসময় উভয় পক্ষের মধ্য প্রথমে ধস্তাধস্তি পরে সংঘর্ষ হয়।  

পটুয়াখালী মালিক সমিতির সভাপতি মো. রিয়াজ মৃধা ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা দুলু মৃধা  জানান, হামলার ঘটনায় প্রশাসন সুষ্ঠু সমাধান না দিলে বুধবার বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। 

এদিকে বাস মালিক ও বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির সদস্য বাদশা মৃধা জানান, বুধবার বিকেলে বাস মালিক পক্ষ সম্মিলিতভাবে তাদের দাবি আদায়ের লক্ষে বাস টার্মিনালে যান এবং দাবি-দাওয়ার কথা বলেন। কিন্তু অবৈধ পূর্বের কমিটির লোকজন অর্তকিতভাবে তাদের ওপর হামলা চালায়। 

এএসপি (সদর সার্কেল) মো. জসিম উদ্দিন জানান, সংর্ঘষের ঘটনার খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসেন এবং সবাইবে শান্ত থাকার আহ্বান জানান। পাশাপাশি যাত্রীদের যেন হয়রানি না হয় সেদিকে নজর রাখতে মালিকপক্ষকে অনুরোধ করেন। 

পটুয়াখালীর ডিসি মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী জানান, পটুয়াখালী বাস টার্মিনালে অপ্রীতিকর ঘটনা শোনার পরে পুলিশকে অবহিত করে তাদের পাঠান। যদি মালিকপক্ষ বাস চলাচল বন্ধের ঘোষণা দেয়, তা হলে তাদের সঙ্গে কথা বলে সমাধান করা হবে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ