নয়াপল্টনে পুলিশের গাড়িতে অগ্নিসংযোগকারী যুবক গ্রেফতার

ঢাকা, সোমবার   ২৪ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ১২ ১৪২৬,   ১৯ শাওয়াল ১৪৪০

নয়াপল্টনে পুলিশের গাড়িতে অগ্নিসংযোগকারী যুবক গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ২১:৫৩ ১০ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ২১:৫৩ ১০ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষ চলাকালে পুলিশের গাড়িতে দেশলাই দিয়ে অগ্নিসংযোগকারী যুবক ওয়াসিমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারের পর গাড়িতে অগ্নিসংযোগের বিষয়টি স্বীকার করেছেন ওয়াসিম বলে জানিয়েছেন ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) মো. আব্দুল বাতেন।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল বাতেন বলেন, বুধবার পল্লবী থানা পুলিশ ওয়াসিমকে গ্রেফতার করে। ওয়াসিম বিএনপির সমর্থক। তবে তিনি দলের কোনো পদে আছেন কিনা, তা তদন্ত করে দেখা হবে।

তিনি আরো বলেন, গত ১৪ নভেম্বর একাদশ সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম বিক্রি কেন্দ্র করে নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সড়ক অবরোধ করে শোডাউন করছিলেন দলটির নেতাকর্মীরা। এতে পুলিশ সড়ক থেকে নেতাকর্মীদের সরিয়ে দিতে গেলে তাদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে। এসময় হামলাকারীরা পুলিশের গাড়ির উপর উঠে নৃত্য করে উন্মত্ততা প্রদর্শন করে এবং দুটি গাড়িতে আগুন দেয়। এতে পুলিশকে মারধরের ঘটনাও ঘটে।

আব্দুল বাতেন বলেন, ওই ঘটনায় ৯০ জনকে আসামি করে পল্টন থানায় তিনটি মামলা হয়। মামলার তদন্তে পুলিশ ঘটনাস্থলের আশপাশের এলাকা থেকে ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে। এগুলো যাচাই-বাছাইসহ প্রকাশ্য ও গোপনে তদন্ত করে পুলিশের গাড়িতে অগ্নিসংযোগকারীকে শনাক্ত করা হয়। এর দায়ে গ্রেফতার করা হয় ১৩ জনকে।

তিনি জানান, নয়াপল্টনের ওই এ ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে পল্লবী থানা পুলিশ মুসলিম বিহারী ক্যাম্প থেকে ওয়াসিমকে গ্রেফতার করে। ফলে গ্রেফতারকৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪। বাকিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

জিজ্ঞাসাবাদে ওয়াসিম ঘটনার সঙ্গে তার জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছে বলেও জানিয়েছেন আব্দুল বাতেন।

এদিকে বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কর্মীরা মাথায় হেলমেট পরে এ নৈরাজ্য সৃষ্টি করেছে।

এর আগে এই ঘটনার সঙ্গে সরাসরি জড়িত- এমন ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। যারা বিএনপির বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী বলে জানা গেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/এসআইএস