Alexa নেপালে শেখ হাসিনা-কেপি শার্মা বৈঠক

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ৫ ১৪২৬,   ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

নেপালে শেখ হাসিনা-কেপি শার্মা বৈঠক

 প্রকাশিত: ১৫:২২ ৩০ আগস্ট ২০১৮   আপডেট: ১৫:৩৪ ৩০ আগস্ট ২০১৮

বৈঠকে নেপালের প্রধানমন্ত্রীর কে পি শর্মা ওলীর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বৈঠকে নেপালের প্রধানমন্ত্রীর কে পি শর্মা ওলীর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

চতুর্থ বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে নেপাল পৌঁছে দেশটির প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

বৃহস্পতিবার সকালে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে সকাল ৯টা ২৫মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে কাঠমান্ডুর ত্রিভূবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা হয়।

নেপালি গণমাধ্যম দ্য হিমালয়ান টাইমস বলছে, আজ বেলা ৩টায় কাঠমান্ডুর হোটেল সোয়ালটি ক্রাউন প্লাজায় শুরু হবে বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলন। তার আগেই দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

দেশটির পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমটি বলছে, দুই নেতার বৈঠকে বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যকার বিভিন্ন দ্বিপাক্ষিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

উপ-আঞ্চলিক সংস্থাটি (বিমসটেক) ১৯৯৭ সালের ৬ জুন ব্যাংকক ঘোষণার মধ্য দিয়ে গঠিত হয়। এর সদস্য দেশগুলোর ৫টি দক্ষিণ এশিয়ার। এগুলো হচ্ছে- বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত, নেপাল, শ্রীলংকা এবং অন্য দুটি দেশ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মিয়ানমার এবং থাইল্যান্ড।

১৯৯৭ সালের ২২ ডিসেম্বর থাইল্যান্ডের ব্যাংককে একটি বিশেষ মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে এই জোটে মিয়ানমারের অর্ন্তভুক্তির মাধ্যমে নতুন নামকরণ হয় ‘বিআইএমএসটি-ইসি’ (বাংলাদেশ, ভারত, মিয়ানমার, শ্রীলংকা এন্ড থাইল্যান্ড ইকোনমিক কো-অপারেশন)।

থাইল্যান্ডে ২০০৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে ৬ষ্ঠ মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে নেপাল এবং ভুটান অন্তর্ভুক্ত হলে জোটের নতুন নামকরণ হয় ‘বে অব বেঙ্গল ইনিশিয়েটিভ ফর মাল্টিসেক্টোরাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকোনমিক কো-অপারেশন (বিমসটেক)।’

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর/জেডএম