Alexa নেদারল্যান্ডের বিচার চায় পাকিস্তান

ঢাকা, রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৭ ১৪২৬,   ২২ মুহররম ১৪৪১

Akash

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করায়

নেদারল্যান্ডের বিচার চায় পাকিস্তান

 প্রকাশিত: ১৯:৫৮ ৩০ আগস্ট ২০১৮   আপডেট: ০৮:৪৬ ৩১ আগস্ট ২০১৮

বিক্ষোভরত পাকিস্তানি মুসলিম উম্মাহ

বিক্ষোভরত পাকিস্তানি মুসলিম উম্মাহ

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করায় নেদারল্যান্ডের বিচার চেয়েছে পাকিস্তানের জনগণ। এ নিয়ে দেশটির অভ্যন্তরে হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভ মিছিল করেছে। 

নেদারল্যান্ডে নূর নবীজি হযরত মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম)'কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রতিযোগিতার আয়োজন পরিকল্পনার বিরুদ্ধে পাকিস্তানে হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভে ফেটে পড়ে। ওই বিক্ষোভ থেকে নিন্দা জানিয়ে দেশটির সাথে পাকিস্তানের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করারও দাবি উঠেছে সমগ্র দেশ জুড়ে। 
 
পাকিস্তানের হাজার হাজার মানুষ রাজধানী ইসলামাবাদে বিক্ষোভ করেছেন। নেদারল্যান্ডের সাথে পাকিস্তানের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন না করা হলে রাজধানী অবরোধের হুমকি দিয়েছেন বিক্ষোভকারিরা। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিনের মতো দেশটির তেহরিক-ই-লাব্বাইকের সদস্যরা পূর্বাঞ্চলীয় শহর লাহোর থেকে ইসলামাবাদ অভিমূখে পদযাত্রা করেছে। 
 
বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও এক বিবৃতিতে মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার মতো এ কাজ থেকে বিরত থাকতে নেদারল্যান্ডের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। আফগান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, নেদারল্যান্ডে এ ধরনের প্রতিযোগিতা বিশ্বের কোটি কোটি মুসলমানের ভাবাবেগে আঘাত করবে। বিশ্বের বিভিন্ন ধর্মের অনুসারীদের মধ্যে হিংসা-বিদ্বেষ ও সহিংসতা উসকে দিতে পারে এই প্রতিযোগিতা। তাদের দাবি এখনি এটা বন্ধ করতে হবে।  জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থাকে নেদারল্যান্ডের এই আয়োজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে কাবুল। 
 
এদিকে, এক সংবাদ সম্মেলনে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি নেদারল্যান্ডে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এর ব্যঙ্গাত্মক এই কার্টুন প্রতিযোগিতার আয়োজন ইস্যুতে জরুরি বৈঠকে বসতে ওআইসিভূক্ত দেশগুলোর প্রতি জোরালো আহ্বান জানিয়েছেন। কোরেশি বলেন, আমি পাকিস্তানের জনগণকে আশ্বস্ত করতে চাই যে, আমরা মুসলিম উম্মাহর অনুভূতির ব্যাপারে সচেতন এবং এই আয়োজনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে বিশ্বের মুসলিমদের পাশে আমরা অবশ্যই দাঁড়াবো। 
 
ডেইলি বাংলাদেশ//আরআই