Alexa নীরবে কাজ করছে সব দল

ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৪ ১৪২৬,   ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪০

সাতক্ষীরা-কলারোয়া

নীরবে কাজ করছে সব দল

 প্রকাশিত: ১৯:৪৮ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮   আপডেট: ২১:০৫ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

কলারোয়ায় রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে অভ্যন্তরীণ কোন্দলে ভাঙন ধরেছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন ও সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম লাল্টুর মধ্যে অভ্যন্তরীণ কোন্দল রয়েছে। ফলে সব স্তরের নেতা কর্মীরা রয়েছে বিভক্ত। সাধারণ কর্মীদের মধ্যে ছোটখাটো ঝামেলা হলে তা বড় আকার ধারণ করে। থানা পুলিশ ও আদালত পর্যন্ত গড়ায়।

ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন এলাকায় গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। অন্য দিকে বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি সহ-সভাপতি সরদার মুজিব ও জোরে শোরে গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন বলেন, আমাদের কর্মসূচিগুলো ঠিকমতো করে যাচ্ছি। আর দলে কোনো বিরোধ নেই।

কলারোয়ায় বিএনপি অনেকটা নীরব। সাবেক এমপি হাবিবুল ইসলাম হাবিবের বাড়ি কলারোয়া উপজেলায়। তার নামে একাধিক মামলা থাকায় তিনি রয়েছেন ঢাকায়। এর কারণে বিএনপির নেতাকর্মীরা মিছিল মিটিং ও সমাবেশ করতে সাহস পায় না। এবার সংসদ নির্বাচনে বিএনপি থেকে হাবিবুল ইসলাম হাবিব নির্বাচন করবেন বলে শোনা যাচ্ছে।

কলারোয়া পৌর মেয়র আক্তারুল ইসলাম বলেন, নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে পুলিশের মামলার কারণে দলীয় কর্মসূচি দিতে পারছি না। কলারোয়ায় জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মীরা পালিয়ে বেড়াচ্ছে। তবে এই উপজেলায় জামায়াতের সদস্য বেশি রয়েছে। সংসদ নির্বাচনে এ উপজেলা থেকে মাওলানা অধ্যাপক শহিদুল ইসলাম মুকুল নির্বাচন করবেন বলে দলের মধ্যে থেকে শোনা যাচ্ছে।

কলারোয়ায় ওয়ার্কার্স পার্টির পক্ষে তেমন কোনো সভা সেমিনার হতে দেখা যায় না। তবে ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক মাস্টার আ. রউফকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেখা যায়। ওয়ার্কাস পার্টির সদস্য সংখ্যক খুব কম রয়েছে। তাদের মধ্যে তালা-কলারোয়া আসন থেকে অ্যাডভোকেট মুস্তফা লুৎফুল্লাহ সংসদ নির্বাচন করবেন। তিনি বর্তমান এমপি হিসেবে বিভিন্ন এলাকার অনুষ্ঠানের মধ্যেও গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন।

এমপি ও ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি মুস্তফা লুৎফুল্লাহ জানান, কলারোয়ায় ওয়ার্কাস পার্টি শক্ত অবস্থানে রয়েছে। তাছাড়া বিগত বছরগুলোতে এখানে অনেক উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে।

কলারোয়ায় জাতীয় পার্টির কমিটি থাকলেও উপজেলা সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মশিউর রহমান থাকেন ঢাকায়। সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ হেল বাকীকে মাঝে মাঝে কর্মীদের নিয়ে সমাবেশ করতে দেখা যায়। এই দলের মধ্যে আসন্ন সংসদ নির্বাচনে কোনো প্রার্থীর নাম তেমন শোনা যাচ্ছে না। এদের কর্মীর সংখ্যাও খুব কম।

সভাপতি মশিউর রহমান বলেন, আমরা আমাদের কাজ করে যাচ্ছি। জনগণ আমাদের সঙ্গে আছে।

>>>কাল থাকছে সাতক্ষীরার তালা উপজেলার রাজনীতি...

ডেইলি বাংলাদেশ/আজ/এমআরকে