Alexa নিজের মাঠে গোল পেলো না বার্সা

ঢাকা, রোববার   ২১ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৬ ১৪২৬,   ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪০

নিজের মাঠে গোল পেলো না বার্সা

 প্রকাশিত: ১১:২৯ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

চলতি মৌসুমে রিয়াল কিংবা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ লিগে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়তে পারেনি বার্সেলোনার সঙ্গে। কিন্তু মাদ্রিদের গেটাফেই ক্যাম্প ন্যুতে এসেও ম্যাচ ড্র করে গেছে তারা। গেটাফের লড়াকু মনোভাবের কাছে হার মেনে গোলশূন্য ড্র করেছে বার্সেলোনা।

এ মৌসুমে গেটাফে একটু মারদাঙ্গা ফুটবল খেলছে। এতে যে খুব একটা লাভ হচ্ছে তা নয়। তবে লিগে রেলিগেশন অঞ্চলের চেয়ে বেশ ওপরে আছে দলটি।

বার্সেলোনার বিপক্ষে এই শরীরনির্ভর খেলাটা প্রথমার্ধে ভালোই কাজে লাগিয়েছে গেটাফে। বার্সেলোনার যে খেলোয়াড়ই প্রতিপক্ষের ডি বক্সের কাছাকাছি এসেছেন, তাকেই ট্যাকলের শিকার হতে হয়েছে। এতটাই বুদ্ধিদীপ্ত সে ট্যাকল, বার্সেলোনার ছন্দময় পাসিং ফুটবল তাতে আটকে গেছে কিন্তু কোনো কার্ডও দেখতে হয়নি গেটাফেকে।

কিন্তু এই বুদ্ধি খাটিয়েও ৪৪ মিনিটে হলুদ কার্ডের হাত থেকে বাঁচতে পারেননি আরামবাররি। মেসিকে টানা দুই-তিনবার ফাউল করে ম্যাচের প্রথম হলুদ কার্ড দেখেছেন এই উরুগুইয়ান। সেখান থেকে পাওয়া ফ্রি কিক থেকে গোল করেছিলেন লুইস সুয়ারেজ।

কিন্তু অফসাইডে বাতিল হয় সে গোল। তবে এর আগেই ম্যাচে এগিয়ে যেত পারত গেটাফে। ৪০ মিনিটে পরতিয়োর দারুণ এক থ্রু বল ধরে বার্সা ডি বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন অ্যাংহেল। কিন্তু এই ফরোয়ার্ডের শট ইয়েরি মিনার পায়ের ছোঁয়া নিয়ে পোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়।

তবে গেটাফের আসল পরীক্ষা শুরু হয় দ্বিতীয়ার্ধে। এ মৌসুমে যে শেষ ৪৫ মিনিটেই ভয়ংকর হয়ে ওঠে বার্সা। মেসি-সুয়ারেজরা দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে চেপে ধরেছিলেন গেটাফেকে। একের পর এক বার্সার আক্রমণ গেটাফে গোলরক্ষক ভিসেন্তে গুইতার সামনে গিয়ে থেমে যাচ্ছিল।

৫৮ মিনিটে কুতিনহোর একটি শট দুর্দান্তভাবে ঠেকিয়ে দিয়েছেন গুইতা। ৮০ মিনিটে মেসির শটও। ৮২ মিনিটে শেষ চেষ্টা হিসেবে পাউলিনহোকে নামান আরনেস্তো ভালভার্দে। কিন্তু ওউসমানে ডেমবেলের মতো হতাশাজনক পারফরম্যান্স না হলেও পাউলিনহো কিংবা ইনিয়েস্তাও বদলি নেমে ম্যাচের ভাগ্য বদলানোয় কোনো ভূমিকা রাখতে পারছিলেন না।

৯১ মিনিটে ডেমবেলের ক্রস থেকে গোল প্রায় দিয়েই দিয়েছিলেন সুয়ারেজ। কিন্তু তার হেড অবিশ্বাস্যভাবে আটকে দিয়েছেন গুইতা। যোগ করা সময়ের শেষ মুহূর্তের ফ্রি কিকে উল্টো ম্যাচ জেতার সম্ভাবনা জাগিয়েছিল গেটাফে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস