Alexa নাসা’র আমন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্র যাচ্ছেন শাবিপ্রবির ৪ শিক্ষার্থী

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৮ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৩ ১৪২৬,   ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪০

নাসা’র আমন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্র যাচ্ছেন শাবিপ্রবির ৪ শিক্ষার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৭:০৩ ২০ জুন ২০১৯   আপডেট: ০৭:১৩ ২০ জুন ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) চার শিক্ষার্থী মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থার (নাসা) আমন্ত্রণ পেয়ে যুক্তরাষ্ট্র যাচ্ছেন। 

এই চার শিক্ষার্থী নাসার আয়োজিত ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ-২০১৮’ এর ‘বেস্ট ডেটা ইউটিলাইজেশন’ বিভাগে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়ে নাসায় আমন্ত্রণ পান। তার টিম অলিকের সদস্য।

টিম অলিকের মেন্টর ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী মঙ্গলবার বলেন, গেল ২৯ মে ও ১২ জুন নাসা কর্তৃপক্ষ দুটি পৃথক মেইলের মাধ্যমে শাবিপ্রবির টিম অলিককে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। অলিককের চার সদস্য আগামী ২০ জুলাইয়ের মধ্যে নাসায় উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। তারা ২১, ২২ ও ২৩ জুলাই নাসার বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নেবেন।

টিম অলিকের সদস্যরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী এস এম রাফি আদনান, ভূগোল ও পরিবেশ বিদ্যা বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী কাজী মাইনুল ইসলাম ও আবু সাবিক মেহেদী ও একই বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সাব্বির হাসান।

এ বিষয়ে অলিকের টিম লিডার আবু সাবিক মাহদী বলেন, তারা  নাসার তথ্য ব্যবহার করে ‘লুনার ভিআর’ তৈরি করে বেস্ট ডেটা ইউটিলাইজেশন বিভাগে বিশ্বে প্রথম স্থান অধিকার করে। 

তিনি বলেন, ভার্চুয়াল রিয়েলিটি অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে চাঁদের পরিবেশ ও তাপমাত্রা কেমন থাকে, চাঁদের রং পরিবর্তন হওয়া, চাঁদে যা আছে যেসব এর আগে কেউ কখনো দেখেনি-চাঁদ থেকে সূর্যের ছবি কেমন হয়, এ প্রজেক্ট ইত্যাদি বিষয় ছিল। 

তিনি আরো বলেন, নাসায় অবস্থানকালীন সময়ে আগামী ২১ জুলাই রকেট ফ্যালকন-৯ এর সিআরএস-১৮ মিশনের মহাকাশে উৎক্ষেপণ সরাসরি দেখতে পারবো। এরপর ২২ ও ২৩ জুলাই অন্যান্য অনুষ্ঠানে যোগদান করবো।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের শেষের দিকে নাসা আয়োজিত নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ-২০১৮ এ ‘বেস্ট ডেটা ইউটিলাইজেশন’ শাবিপ্রবির টিম অলিকসহ বিশ্বের ৭৯টি দেশ অংশ নেয়। বাছাইয়ের পর ২ হাজার ৭২৯টি দলকে পেছনে ফেলে শীর্ষ চারে স্থান করে নেয় টিম অলিক।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর