Alexa নারীকে ছম্মকছাল্লো বললেই পড়তে হবে শাস্তির মুখে!

ঢাকা, শনিবার   ১৭ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ৩ ১৪২৬,   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

নারীকে 'ছম্মকছাল্লো' বললেই পড়তে হবে শাস্তির মুখে!

 প্রকাশিত: ২০:১৭ ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বিভিন্ন অনুষ্ঠানে নিজের জনপ্রিয় গান `ছম্মকছাল্লো`তে কোমর দোলাতে দেখা যায় বলিউড বাদশা শাহরুখ খানকে। হিন্দি ছবির গানে এই শব্দ শুনতে যতই ভালো লাগুক, রিয়েল লাইফে কোনও নারীকে এমন বিশেষণে ভূষিত করলেই সর্বনাশ! শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে যে কোনও ব্যক্তিকে।

কারণ মুম্বাইয়ের এক আদালত জানিয়েছে, এ ধরনের বিশেষণ প্রয়োগে নারীর সম্মানহানি হয়।
হিন্দিতে `ছম্মকছাল্লো` বললে কোনও নারীর শারীরিক গঠনের অশালীন ইঙ্গিত মেলে। আর সেই কারণেই এমন শব্দ ব্যবহারে লাগাম টানতে চাইছে আদালত। কিং খানের `রা-ওয়ান` ছবির গানটি সুপারহিট হওয়ার পর থেকেই এই শব্দ ব্যবহারের প্রবণতাও যেন বেড়ে গেছে। আর তাই এর বিরুদ্ধে কঠোর হয়েছে আদালত।

গত সপ্তাহে এই অপরাধে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা হয়। আদালতে মামলাটি উঠার আগে অভিযুক্তকে এক টাকা জরিমানাও করা হয়। এক নারীর অভিযোগের ভিত্তিতেই গ্রেফতার করা হয় তাকে। তবে এই অভিযুক্ত `রা-ওয়ান` মুক্তির পাওয়ারও অনেক আগেই ঘটনাটি ঘটিয়েছিলেন।

ওই নারী জানিয়েছেন, ২০০৯ সালের ৯ জানুয়ারি সকালে স্বামীর সঙ্গে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। সে সময়ই বাড়িতে ঢোকার সিঁড়ি দিয়ে উঠতে গিয়ে সেখানকার আবর্জনা স্তূপে হোঁচট খান তিনি। মহিলার বক্তব্য, অভিযুক্তই সিঁড়ির মাঝখানে ওভাবে আবর্জনা রেখে দিয়েছিলেন। শুধু তাই নয়, নারীকে পড়ে যেতে দেখে তাকে `ছম্মকছাল্লো` বলেও সম্বোধন করেন অভিযুক্ত। গোটা বিষয়টি বেশ অপমানজনক বলে মনে হয় ওই নারীর। তখনই পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করতে যান তিনি। কিন্তু পুলিশ অভিযোগ নিতে অস্বীকার করলে সোজা আদালতের দ্বারস্থ হন।

তারপর কেটে গেছে নয় বছর। সময়ের সঙ্গে এক প্রকার ধামাচাপাই পড়ে গিয়েছিল মামলাটি। এতো বছর পর অবশেষে মামলাটি আদালতে ওঠে।

জানানো হয়, ভারতীয় দণ্ডবিধির ৫০৯ ধারায় অপরাধ করেছেন ওই ব্যক্তি। বিচারক বলেন, `এটি হিন্দি শব্দ। ইংরেজিতে এমন কোনও শব্দ নেই। সাধারণত এমন শব্দে কোনও নারীকে অপমান করা হয়। সম্মানহানি হয় তার। নারী এতে বিরক্ত ও ক্ষুব্ধ হন। তাই তিনি শাস্তির যোগ্য।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ

Best Electronics
Best Electronics