নারায়ণগঞ্জে গ্যাসের আগুনে দগ্ধ আটজন, পাঁচজনের মৃত্যু

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৫ ১৪২৬,   ১৪ শা'বান ১৪৪১

Akash

নারায়ণগঞ্জে গ্যাসের আগুনে দগ্ধ আটজন, পাঁচজনের মৃত্যু

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:২৬ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৪:২৯ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট (ফাইল ছবি)

শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট (ফাইল ছবি)

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় গ্যাসের চুলার আগুনে দগ্ধ আরো দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন, কিরণ মিয়ার ছোট ভাই হিরণ মিয়া ও কিরণের ছেলে আপন। এ পর্যন্ত দগ্ধ আটজনের মধ্যে পাঁচজন মারা গেছেন।

মঙ্গলবার সকালে শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান হিরণ, এর আগে মধ্যরাতে মারা যায় আপন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া। এর আগে আপনের দাদি নুরজাহান, পরে তার বাবা কিরণ ও আপনের বড় ভাই আবুল হোসেন মারা যান।

এর আগে ১৭ ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার সাহেবপাড়া এলাকায় পাঁচতলা ফ্ল্যাট বাড়ির নিচতলায় গ্যাসের চুলার আগুনে অগ্নিদগ্ধ হয় একই পরিবারের আটজন। আগুনে ওই বাড়ির আসবাবসহ সব মালামাল পুড়ে যায়। প্রাণে বেঁচে যায় ১৩ মাস বয়সী ইকরা মনিসহ কিরণ মিয়ার স্ত্রী লিপি আক্তার। আশপাশের লোকজন দগ্ধ আটজনকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

দগ্ধ ব্যক্তিদের স্বজন ও এলাকাবাসী জানান, ওই এলাকায় দিনের বেলায় গ্যাস থাকে না। গভীর রাতে গ্যাস আসে। এ কারণে অনেকে গ্যাস আসার অপেক্ষায় চুলার চাবি অন করে রাখেন। ওই দিন রাতে তারা গ্যাসের চাবি অন করে রাখলে পুরো ঘরে গ্যাস জমে যায়। সকালে রান্না করার জন্য চুলা জ্বালাতে গেলে জমে থাকা গ্যাস থেকে আগুন লাগে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম