.ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ৬ ১৪২৫,   ১৪ রজব ১৪৪০

নারায়ণগঞ্জে আসামি ছাড়িয়ে নিতে পুলিশকে ধাওয়া, নিহত ১

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১০:২৪ ১৩ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১১:৩১ ১৩ জানুয়ারি ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় পুলিশের কাছ থেকে দুই আসামিকে ছাড়িয়ে নিতে স্থানীয় একটি গ্রুপের সঙ্গে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে এক যুবকের মৃত্যু ও পুলিশসহ অন্তত অর্ধশত আহত হয়েছেন।  

শনিবার রাতে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশের দুটি গাড়ি  ভাঙচুর করা হয়। সংঘর্ষের কারণে প্রায় দেড় ঘণ্টা ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড টিয়ার সেল ও প্রচুর ফাঁকা গুলি ছুড়ে। সেখানে এখনও থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

এ ঘটনায় পুলিশের এস আই মোহাম্মদ আলী, কনস্টেবল দেবাশীষ, মোহনসহ ৪জন আহত হন। এছাড়া স্থানীয় অন্তত আরো ৪০ থেকে  ৪৫ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে বাবু নামের এক যুবককে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতের নাম আশিকুর রহমান (২৫)। সে মদনপুরের চানপুর এলাকার শহীদুল ইসলামের ছেলে। আশিকুর রহমান মদনপুরের প্যানডেক্স গার্মেন্টের শ্রমিক।

আশিকুরের পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, আশিকুর শনিবার বিকেলে কাজ শেষে বাড়ি ফেরে। পরে সন্ধ্যার দিকে বাজার করতে গেলে সংঘর্ষের মাঝখানে পড়ে প্রাণ হারায় আশিকুর।

জানা গেছে, মদনপুরে ইউপি মেম্বার খলিলুর রহমান ওরফে খলিল মেম্বার ও প্রতিপক্ষ একটি গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মহরা চলত। এ নিয়ে গত ১৮ নভেম্বর ২০১৮ প্রতিপক্ষরা খলিল মেম্বারকে অফিসে প্রবেশ করে এলোপাতাড়ি ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শনিবার সন্ধ্যায় মদনপুর এলাকার ড্রিমল্যান্ড নামের একটি রেস্টুরেন্ট থেকে মাদক ব্যবসায়ী নূর নবী ও রিফাত নামের দুইজন মাদক বিক্রেতাকে আটক করা হয়। তারা মূলত প্রভাবশালী খলিল মেম্বারের লোক। এ খবর স্থানীয়ভাবে ছড়িয়ে পড়ে। তখন খলিল মেম্বারের বাহিনীর প্রধান চাঁনপুর এলাকার মতিনের ছেলে সুজন, দিপু, মাইনুদ্দিন, সেলিম, মুকুল, হান্নানসহ ২৫ থেকে ৩০ জন এসে পুলিশকে ঘিরে রাখে। তারা আটক দুইজনকে ছাড়িয়ে নিতে চেষ্টা করে। 

তখন পুলিশ বাধা দিলে তাদের উপর হামলা শুরু হয়। রাত সাড়ে ৭টায় মদনপুর এলাকার খলিল মেম্বার ও তার লোকজন পুলিশকে ধাওয়া করে। পরে পুলিশও পাল্টা অ্যাকশনে যায়। খলিল মেম্বার ও পুলিশের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ শুরু হলে পুলিশ টিয়ার সেল ও ফাঁকা গুলি ছুড়তে থাকে। বন্ধ হয়ে যায় ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে যান চলাচল।

পরে রাত ৯টায় অতিরিক্ত পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা সেখানে হাজির হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

নারায়ণগঞ্জ বন্দর থানার ওসি আজহারুল ইসলাম জানান, সংঘর্ষের পর এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আছে। কেউ মারা গেছে বলে বিষয়টি আমাদের জানা নেই।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর

 

শিরোনাম

শিরোনামচট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (চাকসু) নির্বাচনের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ শিরোনামসাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে ভারতের কাছে ৪-০ গোলে হেরে বাংলাদেশের বিদায় শিরোনামবাসচাপায় আবরারের মৃত্যুর ঘটনায় ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের শিরোনামযশোরের শার্শায় পিকআপ ভ্যানচাপায় স্কুলছাত্রীর পা বিচ্ছিন্ন শিরোনামরাজধানীতে সড়ক দুর্ঘটনায় বিইউপির ছাত্র নিহতের প্রতিবাদে প্রগতি সরণিসহ কয়েকটি সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ; নিরাপদ সড়কের দাবিতে শাহবাগে ঢাবি শিক্ষার্থীদের অবস্থান শিরোনামসিঙ্গাপুরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সফলভাবে বাইপাস সার্জারি সম্পন্ন শিরোনামক্রাইস্টচার্চ হামলা: নিহতদের দাফন শুরু; এখনো হস্তান্তর হয়নি সব মরদেহ শিরোনামঢাকা-কলকাতা জাহাজ সার্ভিস চালু ২৯ মার্চ