নান্দাইলে পল্লী বিদ্যুতের ইচ্ছামত বিল তৈরি, বেকায়দায় গ্রাহকরা

ঢাকা, বুধবার   ০৩ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭,   ১০ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

নান্দাইলে পল্লী বিদ্যুতের ইচ্ছামত বিল তৈরি, বেকায়দায় গ্রাহকরা

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:১৪ ৯ মে ২০২০   আপডেট: ১৪:১৯ ৯ মে ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির গ্রাহকদের জন্য গলার কাটা হয়ে দাঁড়িয়েছে মাসিক বিল। বাড়িতে না যেয়েই ইচ্ছা মত বিল  তৈরি  করে পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে বাড়ি বাড়ি।        

নান্দাইল ইউপির দাতারাটিয়া বাজারের বাণিজ্যিকসহ একই এলাকার আবাসিক  দেড়  শতাধিক মিটারের মনগড়া বিল তৈরি করা হয়েছে। প্রতিটি বিলে  ১৫/২০/৩৫/৪০/৫০/৬০ ইউনিট করে বেশি যোগ করে বিল তৈরি করা হয়েছে।  

পৌরসভার এস এম সরকার নামে একটি  বিলে মার্চের ১২ তারিখ থেকে এপ্রিলের ১২ তারিখ পর্যন্ত বিল করা হয়েছে ১১৫ ইউনিটের। অথচ আজ ৯ মে পর্যন্ত এই মিটারের বিল হওয়ার কথা ১২৩ ইউনিটের। 

দাতারাটিয়া বাজারের শাহাবুদ্দিনের বাণিজ্যিক মিটারের অতিরিক্ত বিল করা হয়েছে ৫৭ ইউনিটের, টাকার অঙ্কে অতিরিক্ত দাম এসেছে ৫৮৭ টাকা।     

একই বাজারের হাবিবুল্লাহর বাণিজ্যিক মিটারের অতিরিক্ত বিল করা হয়েছে ৩২ ইউনিটের টাকার অঙ্কে ৩২৯ টাকা বেশি।     

এ ব্যাপারে শাহাবুদ্দিন হাবিবুল্লাহ জানান, লকডাউনের কারণে এমনিতেই ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ, বিদ্যুৎ এর অতিরিক্ত বিল আরো গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমরা এই বিল কিভাবে দেব চিন্তা করে পাচ্ছিনা।। 
              
এছাড়াও একই এলাকার আহাছানউল্লা, এনামুল হক, জিয়া উদ্দিন, আবুল কাসেম, আ. সালাম, ফারুক আহমেদসহ বাণিজ্যিক, আবাসিক দেড়শতাদিক মিটারের মনগড়া বিল পাঠানো হয়েছে।          

এ ব্যাপারে নান্দাইল জোনাল ম্যানেজার উত্তম কুমার সাহা এর সত্যতা স্বীকার করে  জানান, সারা নান্দাইলে প্রায় ১ লাখ গ্রাহক রয়েছে। আমরা করোনা পরিস্থিতির জন্য বাড়িতে  পাঠিয়ে বিল করতে পারি নি। অনুমান নির্ভর বিল করা হয়েছে। সামনের মাসে সমন্বয় করা হবে। এরপরও কেউ যদি মনে করে সংশোধন করে নেবে তাহলে অফিসে আসলে আমরা তা করে দেব।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে