Alexa নাটোরে শিক্ষার্থীদের ব্যাংকে আট কোটি টাকা

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৯ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ৪ ১৪২৬,   ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

নাটোরে শিক্ষার্থীদের ব্যাংকে আট কোটি টাকা

নাটোর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:১৮ ১২ অক্টোবর ২০১৯  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

স্কুল ব্যাংকিং কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে নাটোরের ২৪ হাজার শিক্ষার্থী প্রায় আট কোটি টাকা জমা করেছেন। আর দেশে ১৮ লাখ ১৮ হাজার ৩১৪ শিক্ষার্থী মোট এক হাজার ৫১০ কোটি টাকা জমা করেছেন। শনিবার লীড ব্যাংক রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের আয়োজনে নাটোরে অনুষ্ঠিত স্কুল ব্যাংকিং কনফারেন্সে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

দিনব্যাপী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে নাটোর নবাব সিরাজ-উদ-দৌলা সরকারী কলেজ মিলনায়তনে আয়োজিত কনফারেন্সে বক্তারা বলেন, স্কুল ব্যাংকিং কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে শিক্ষার্থীদের সঞ্চয় মনোভাবাপন্ন করে গড়ে তোলা সম্ভব। এ সঞ্চয় পরিবারের জরুরি পরিস্থিতিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। ব্যাংকের জমা করা অর্থ বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে সাহায্য করে, বিনিয়োগ কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে। আর এভাবে আসে দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি।

বক্তারা বলেন, শিক্ষার্থীদের ব্যংকের এ হিসাব সম্পূর্ণ চার্জমুক্ত। মাত্র নয় বছরের মধ্যে ১৮ লাখ শিক্ষার্থী দেড় হাজার কোটি টাকা জমা করেছে- যা অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক। শিশুদের জমা করা এ অর্থে নতুন চারটি ব্যাংক তৈরি করা সম্ভব। খুব শিগগির তাদের জমার পরিমাণ বেড়ে পনের হাজার কোটি টাকায় পৌঁছবে বলে ব্যাংক কর্মকর্তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ ইদ্রিছ।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জনতা ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক মো. আখতারুজ্জামান, বাংলাদেশ ব্যাংকের উপ মহাব্যবস্থাপক আবুল হাসনাৎ মো. নজরুল ইসলাম, নাটোর আগদিঘা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মহসীন আলী।

শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য দেন নাটোর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী নাফিসা গাওহর মেধা ও নাটোর সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র পিয়াস সাহা।

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক মো. নূরুল ইসলাম সভা প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন।

এরআগে জেলার ২৬টি ব্যাংক ও ২৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শহর প্রদক্ষিণ করে। আলোচনা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং কনফারেন্স মিলনায়তন প্রাঙ্গনে মেলারও আয়োজন করা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ