নববধূ লাবনীর পরকীয়ার বলি মাইক্রোচালক বেলাল
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=197885 LIMIT 1

ঢাকা, সোমবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ৭ ১৪২৭,   ০৪ সফর ১৪৪২

নববধূ লাবনীর পরকীয়ার বলি মাইক্রোচালক বেলাল

লালমনিরহাট প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৫৬ ৪ আগস্ট ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় মাইক্রোচালক বেলাল হোসেন হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটনসহ ঘাতক আলমগীর হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুরে নিজ সম্মেলন কক্ষে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেন লালমনিরহাটের এসপি আবিদা সুলতানা।

গ্রেফতার আলমগীর হোসেন লালমনিরহাট সদর উপজেলার মোস্তফী এলাকার মজিবর রহমানের ছেলে। তিনি হত্যার শিকার বেলাল হোসেনের সদ্য বিবাহিতা স্ত্রী লাবনী বেগমের দুলাভাই। নিহত মাইক্রোবাস চালক বেলাল হোসেন লালমনিরহাট সদর উপজেলার হাড়িভাঙ্গা এলাকার আবুল কালাম আজাদের ছেলে।

গ্রেফতার আলমগীরকে জিজ্ঞাসাবাদের বরাতে প্রেস ব্রিফিংয়ে এসপি আবিদা সুলতানা জানান, শ্যালিকা লাবনী বেগমের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক ছিল আলমগীর হোসেনের। গত ২৪ জুন হঠাৎ করে পারিবারিকভাবে লাবনী বেগমের সঙ্গে বিয়ে হয় মাইক্রোচালক বেলালের। এ বিয়ে মেনে নিতে পারেননি লাবনীর প্রেমিক আলমগীর। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বেলাল হোসনকে হত্যার পরিকল্পনা করেন তিনি।

এসপি আবিদা জানান, গত ২৫ জুলাই রাত সাড়ে ৯টার দিকে বেলালকে চেতনানাশক ওষুধ খাওয়ান আলমগীর। এরপর তাকে আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউপির যুগিটারী গ্রামে নিয়ে গলা কেটে হত্যা করেন। পরে লালমনিরহাট বুড়িমারী মহাসড়কের পাশে পাটখেতে মরদেহ ফেলে পালিয়ে যান আলমগীর ও তার সহযোগীরা। এর দুদিন পরে ২৭ জুলাই স্থানীয়দের দেয়া খবরে বেলালের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করে আদিতমারী থানা পুলিশ। এ ঘটনায় পরদিন নিহত বেলালের মা বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে আদিতমারী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশএসপি আরো জানান, ‘ক্লু-লেস এ হত্যা মামলাটি আদিতমারী থানার এসআই আনিচুর রহমান আনিচ তদন্ত করে সন্দেহজনকভাবে বেলালের নববধূ লাবনী বেগমকে আটক করে। পরে তার দেয়া তথ্যমতে গতকাল সোমবার সদর উপজেলার বড়বাড়ি এলাকা থেকে আলমগীরকে গ্রেফতার করা হয়। আলমগীরের দেয়া তথ্যমতে হত্যায় ব্যবহৃত অস্ত্র ও ছুরি উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি হত্যার দায় স্বীকার করেছেন।

প্রেস ব্রিফিংয়ে অ্যাডিশনাল এসপি রবিউল ইসলাম, আদিতমারী থানার ওসি সাইফুল ইসলাম ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আনিচুর রহমান আনিচ উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম