.ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৫ ১৪২৬,   ১৩ শা'বান ১৪৪০

নদী দখলদারদের সন্ত্রাসী তালিকায় নাম উঠানোর দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ১৬:২০ ৮ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৬:২০ ৮ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সারা দেশের নদী দখলকারীদের চিহ্নিত করে সন্ত্রাসী হিসেবে তালিকা করা প্রয়োজন। সেই তালিকা আবার জনসাধাণের সামনে তুলে ধরার আহ্বান জানিয়েছেন নদীর নিরাপত্তা সামাজিক সংগঠনের ‘নোঙর’ সভাপতি সুমন শামস।

এ উদ্যোগের বিষয়টি সরকারসহ নির্বাচনে অংশ নেয়া সব রাজনৈতিক দলের ইশতেহারে অর্ন্তভুক্ত করারও দাবি জানান তিনি। 

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এ দাবি জানায় সংগঠনটি।

নোঙর সভাপতি সুমন জানান, বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর দেশে নদী পথের দৈর্ঘ্য ছিল ২৪ হাজার বর্গকিলোমিটার। নদী দখলকারীরা এ পথের দৈর্ঘ্য কমিয়ে বর্তমানে ৩ হাজার ৮০০ বর্গ কিলোমিটারে নামিয়ে এনেছে। দেড় হাজার নদী থেকে কমে বর্তমান নদীর সংখ্যা ঠেকেছে ৩শ’-তে।

অবৈধ দখল উচ্ছেদ করে নদীর জায়গা নদীকে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, রাজধানীর চারপাশ ঘিরে থাকা বুড়িগঙ্গা, বালু, তুরাগ ও শীতলক্ষ্যা নদী দখল ও দূষণে মৃতপ্রায়। বালু নদীতে নৌযান চলাচল কঠিন হয়ে পড়েছে। ৩৬ কিলোমিটারের এই নদীর ২২ কিলোমিটার অবৈধ দখলে। দখল ও দূষণের ফলে হারিয়ে গেছে ২৫টি নদী। 

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বর্তমানে বিপন্ন নদীর সংখ্যা ১৭৪। এরমধ্যে ১১৭টি নদী মৃতপ্রায়। নদ-নদী জলাশয় রক্ষার প্রয়োজনীয়তা নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না। এক্ষেত্রে আদালতের নির্দেশ উপেক্ষিত হচ্ছে। এসময় মানববন্ধনে নদী-প্রকৃতি রক্ষার বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিল।

ডেইলি বাংলাদেশ/সেতু/আরএইচ/এমআরকে