Alexa নতুন বছরে স্ত্রীকে ২২ ভরি স্বর্ণের হার দিলেন অটোচালক

ঢাকা, শনিবার   ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ১৬ ১৪২৬,   ০৫ রজব ১৪৪১

Akash

নতুন বছরে স্ত্রীকে ২২ ভরি স্বর্ণের হার দিলেন অটোচালক

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৪২ ৩ জানুয়ারি ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

মাটির ঘরে রোদ-বৃষ্টি আটকাতে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে পলিথিন। জীবিকা নির্বাহের জন্য ওই ঘরের মালিক সৈয়দ নূর চালান বি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা। তবে নতুন বছরের প্রথম দিনে ২২ ভরি ওজনের স্বর্ণের হার স্ত্রীকে উপহার দিয়েছেন তিনি। আর এতে ফাঁস হয় তার আসল চেহারা। সবার সামনে ইয়াবা ব্যবসার মুখোশ খুলে যায়।

বৃহস্পতিবার কক্সবাজারের হ্নীলা ইউপির রঙ্গিখালী গাজিপাড়ার নিজ ঘর থেকে দরিদ্র রূপী ওই চালককে আটক করে পুলিশ। এ সময় হার, তার রশিদ ও ১০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, টেকনাফের বড় ইয়াবা ব্যবসায়ী নুর হাফেজ দুই সপ্তাহ আগে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়। ওই সময় পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সৈয়দ নুরের দিকে নজর পড়ে পুলিশের্। তবে বড় ধরনের ইয়াবা ব্যবসায়ী হিসেবে তাকে মনে  করা হয়নি। কারণ নুর ছোট্ট মাটির ভাঙাচোরা ঘরে বসবাস করেন। কথিত শ্রমজীবীর সেই মাটির ঘরেই সন্দেহের বশে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ১০ হাজার ইয়াবাসহ সৈয়দ নুরকে আটক করে। এরপর ঘরের মালামাল তল্লাশিতে আকর্ষণীয় একটি স্বর্ণের হারের সন্ধান মেলে। ওই সময় স্বর্ণ কেনার রশিদ ঘরেই পাওয়া যায় । যেখানে স্বর্ণের মূল্য ১৪ লাখ টাকা দেখা যায়।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে নুর জানান, বছরের প্রথম দিনে ২২ ভরি ওজনের স্বর্ণের হারটি স্ত্রীকে উপহার দেন।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, দুই বছর ধরে ইয়াবার বিরুদ্ধে কাজ করছি। কিন্তু নূরের ঘটনাটি ভিন্ন। নূরকে সন্দেহ করার মতো কোনো ক্লু ছিল না। দিনে সে একজন অটোরিকশা চালক। তার ঘর জরাজীর্ণ। তবে ইয়াবার ডন খ্যাত হাফেজ বন্দুকযুদ্ধে নিহতের পর তার নামটি সামনে আসে।

কক্সবাজারের এসপি এবিএম মাসুদ হোসেন জানান, ইয়াবা ব্যবসায়ীরা কৌশলের অংশ হিসেবে প্রকাশ্যে দীনহীন জীবনযাপন করছেন। আগে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা আলিশান বাড়ি নির্মাণ করে নজরে পড়েছিলেন। এখন চতুর ব্যবসায়ীরা মাটি ও খড়ের ভাঙাচোরা ঘরে বসবাসের কৌশল নিয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ