নগরকান্দায় সংঘর্ষে যুবক নিহত, সাংবাদিকের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা

ঢাকা, শনিবার   ০৪ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২১ ১৪২৬,   ১০ শা'বান ১৪৪১

Akash

নগরকান্দায় সংঘর্ষে যুবক নিহত, সাংবাদিকের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা

ফরিদপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০০:৩৮ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

সাংবাদিক বেলায়েত হোসেন লিটন (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

সাংবাদিক বেলায়েত হোসেন লিটন (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

ফরিদপুরের নগরকান্দায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত যুবক রাজুর মৃত্যুর পর গ্রেফতার আতঙ্কে ঈশ্বরদী গ্রামের শতাধিক পুরুষ গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। উপজেলার কোদলিয়া শহীদনগর ইউপির ঈশ্বরদী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সালথা উপজেলার গট্টি ইউপির ঠেনঠেনিয়া গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি শনিবার বিকেলে মারা যান রাজু কারিগর নামে এক যুবক। এর আগে ২৯ জানুয়ারি (বুধবার সকালে) ঈশ্বরদী গ্রামের ওয়াদুদ মাতুব্বর ও রাজ্জাক মাতুব্বরের সমর্থকদের সঙ্গে মাসুদ মাতুব্বর ও ছলেমান মাতুব্বরের সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়। এতে মাসুদ মাতুব্বরের সমর্থক রাজু কারিগরসহ উভয়পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হন।

মৃত্যুর তিনদিন আগে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে তাকে ছাড়পত্র দেয় পুলিশ। এ ঘটনায় নিহত রাজুর পিতা সিরাজ কারিগর বাদী হয়ে পরেরদিন নগরকান্দা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। নিহত রাজুর স্ত্রী ও একটি মেয়ে রয়েছে। 

নিহতের পিতা সিরাজ কারিকর জানান, সংঘর্ষের সময় আমার ছেলে রাজুকে কুপিয়ে আহত করে প্রতিপক্ষ। হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে রাজু তার শ্বশুর বাড়ি থেকে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। তার মৃত্যুর পর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছি। তবে এখন পর্যন্ত কোনো আসামি গ্রেফতার হয়নি।

নগরকান্দা থানার ওসি সোহেল রানা জানান, রাজু হত্যা মামলায় ৩৪ জনকে আসামি করা হয়েছে। তাদের সবাই এলাকা থেকে পালিয়ে গেছেন। এজন্য গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তবে আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এদিকে রাজু হত্যা মামলায় নগরকান্দা প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি ও জাতীয় পত্রিকার স্থানীয় প্রতিনিধি বেলায়েত হোসেন লিটনকে আসামি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সাংবাদিক বেলায়েত হোসেন লিটন বলেন, ওই সংঘর্ষের সময় আমি পেশাগত কাজে নগরকান্দা উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে ছিলাম। আসামিপক্ষ প্রতিবেশী হওয়ায় ষড়যন্ত্রমূলকভাবে আমাকে আসামি করেছেন।

স্থানীয় সাংবাদিকরা এ ঘটনার নিন্দা ও দ্রুত তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত আসামিদের গ্রেফতারে জোর দাবি জানিয়েছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম