Alexa ধানে বিএলবি রোগ, দিশেহারা কৃষক

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ২ ১৪২৬,   ১৭ মুহররম ১৪৪১

Akash

ধানে বিএলবি রোগ, দিশেহারা কৃষক

 প্রকাশিত: ১০:১২ ২১ অক্টোবর ২০১৭   আপডেট: ১৮:২২ ২৩ অক্টোবর ২০১৭

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার ধুমঘাট এবং শ্রীফলকাঠি গ্রাম এলাকার প্রায় ৬০ ভাগ জমির ধান ব্যাকটেরিয়াল লিফ ব্লাইট (বিএলবি) রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েছে। এতে ওই এলাকার কৃষকেরা ফসলের ক্ষতির চিন্তায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। লাভ তো দূরের কথা; আসল উঠে কিনা তাই নিয়ে এখন শঙ্কিত তারা।

কৃষকেরা জানান, গত বছর প্রতি বিঘা জমিতে ধান লাগিয়ে তারা ফলন পেয়েছেন ২০-২২ মনের বেশি কিন্তু এবার বিএলবি রোগের কারণে ১২-১৫ মণের নিচে ফলন নেমে আসবে বলে তারা আশঙ্কা করছেন।

তারা আরও জানান, এক বিঘা জমিতে ধান চাষ করতে তাদের প্রায় ৮ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। বর্তমান বাজারে ধানের দাম এমনিতেই নিম্নমুখী। ইরি ধান বাজারে ওঠার সাথে সাথে ধানের দাম আরও কমে যাবে বলে কৃষকেরা আশঙ্কা করছেন। আর রোগের কারণে মাঠে ধানের যে অবস্থা তাতে প্রতি বিঘা জমির ধান বিক্রি করে ৭ হাজার টাকার বেশি পাওয়া যাবে বলে মনে হচ্ছে না। এতে করে কৃষকের উত্পাদন খরচও উঠবে না।

ঈশ্বরীপুর ইউনিয়নের শ্রীফলকাটি গ্রামের ধানের মাঠে এ রোগ বেশি দেখা গেছে। এ ব্যাপারে ঐ ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপজেলা কৃষি বিভাগের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তার সাথে কথা বললে তিনি বলেন, ‘আমাদের ওই এলাকায় কোনেও উপ-সহকারী নেই তার পরেও আমরা বিষয়টি দেখার চেষ্টা করব এবং কৃষকের সমস্যা সমাধানে পদক্ষেপ নিবো।’

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবুল হোসেনসহ উপ-সহকারীরা ওই এলাকাগুলো পরিদর্শন করেন। ধান ক্ষেতে ঘাস মারার জন্য কিছু কিছু জমিতে অতিরিক্ত কীটনাশক ব্যবহার করা হয়েছে বলে এই রোগের আক্রমণ হয়েছে বলে তারা জানান।

এর আগে ওই এলাকা ঘুরে বারসিক শ্যামনগর এলাকা সমন্বয়কারী কৃষিবিদ পার্থ সারথী পাল বলেন, ‘ধান ক্ষেতগুলি বিএলবি রোগে আক্রান্ত। ধানের ফলন কম হবে বলে মনে করছি।’

এই রোগে আক্রান্ত জমির মালিকেরা ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার জন্য সরকার তাদের সাহায্য করার জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/ এআর