দেশে করোনায় আরো দুইজনের মৃত্যু

ঢাকা, বুধবার   ২৭ মে ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৭,   ০৪ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

দেশে করোনায় আরো দুইজনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:১০ ৪ এপ্রিল ২০২০   আপডেট: ১৭:২৪ ৫ এপ্রিল ২০২০

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এর পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এর পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো দুইজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো আটজনে।

শনিবার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন এর পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ৫৫৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এই ৯ জনের মধ্যে ৮ জনের পরীক্ষা সরাসরি আইইডিসিআর করেছে।

আইইডিসিআর পরিচালক বলেন, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ৫ জন এরইমধ্যে করোনায় সংক্রমিত রোগীর পরিবারের সদস্য। দুই জন বিদেশ ফেরত এক রোগীর সংস্পর্শে এসেছিলেন। বাকি দুই জনের করোনাভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার কারণ জানা যায়নি।

তিনি জানান, নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে ১০ বছর বয়সের নিচে দুই শিশু রয়েছে। তিন জনের বয়স ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে। দুই জনের বয়স ৫০ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে। এক জনের বয়স ৬০ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে। অন্য এক জনের বয়স ৯০ বছর। 

মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, নতুন করে মারা যাওয়া দুই জনের মধ্যে এক জনের বয়স ৬৮ বছর। অন্য জনের বয়স ৯০ বছর। তিনি গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে এক জন। এই দুই জনের মধ্যে এক জন ঢাকায় মারা গেছেন, অন্যজন ঢাকার বাইরে।

তিনি বলেন, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন। এর ফলে দেশে করোনায় আক্রান্ত মোট ৭০ জনের মধ্যে ৩০ জন সুস্থ হয়েছেন।

গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহানে প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনাভাইরাস এখন বৈশ্বিক মহামারি। বিশ্বের প্রায় ২০৪টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এ ভাইরাসটি। এখন পর্যন্ত এই প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১১ লাখ ১৮ হাজার ৫৫ জন এবং মারা গেছেন ৫৯ হাজার ২০৩ জন। অপরদিকে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন দুই লাখ ২৯ হাজার ১৫১ জন।

বাংলাদেশে এ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে গত ৮ মার্চ। করোনার বিস্তাররোধে দেশের সব স্কুল-কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় এবং সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে সভা-সমাবেশ ও গণজমায়েতের ওপর। 

বন্ধ করে দেয়া হয়েছে দেশের সব বিপণিবিতান। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে আদালতও। এমনকি একাধিক এলাকাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বাস, ট্রেন, লঞ্চসহ সব ধরনের গণপরিবহন। এ কার্যক্রমে স্থানীয় প্রশাসনকে সহায়তার জন্য দেশের সব জেলায় মোতায়েন করা হয়েছে সশস্ত্র বাহিনী।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ/এস/