দেশে ষাটোর্ধ্ব ৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ

ঢাকা, শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২৩ ১৪২৭,   ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

দেশে ষাটোর্ধ্ব ৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:১৯ ৩০ মার্চ ২০২০   আপডেট: ১৪:২৬ ৩০ মার্চ ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

দেশে নতুন করে আরো ৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন বলে জানিয়েছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)। এদের মধ্যে একজনের বয়স ৮০ বছর অন্য দুইজনের বয়স ৬০ বছরের বেশি।

সোমবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে আইইডিসিআর -এর পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা এক লাইভ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আমরা সব সময় এই ভাইরাসের জন্য বয়োজ্যেষ্ঠদের ঝুঁকিপূর্ণ বলি। সে জন্য যারা আমাদের মধ্যে বয়োজ্যেষ্ঠ আছেন তাদের মধ্যে এক ধরনের দুশ্চিন্তা কাজ করে। আমরা তাদেরকে আশ্বস্ত করতে চাই যে, বয়োজ্যেষ্ঠ হলেই যে এই ভাইরাসের জন্য মারা যাবেন তা কিন্তু নয়। আমরা তাদের স্বাস্থ্যের কথা ভেবেই অতিরিক্ত সতর্ক থাকার কথা বলছি। 

তিনি আরো বলেন, এই ষাটোর্ধ্ব তিনজনের মধ্যে সবারই অন্যান্য রোগ ছিল। প্রায় সবাই হাঁপানি, ডায়বেটিসসহ উচ্চ রক্তচাপের রোগী ছিলেন। এদের মধ্যে দু’জন বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন। 

মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, এর আগে দেশে মোট করোনায় আক্রান্ত ছিলেন ৪৮ জন। তাদের মধ্যে ১৫ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছিলেন। নতুন করে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এই চারজনের মধ্যে একজন চিকিৎসক ও একজন নার্সও রয়েছেন। এ নিয়ে মোট ১৯ জন রোগী সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। 

তিনি আরো জানান, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো একজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি একজন নারী। তার বয়স ২০ বছর। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ জনে দাঁড়িয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১৫৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এদের মধ্যে একজনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এখন পর্যন্ত মোট ১৩৩৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

ব্রিফিংয়ে করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে নাগরিকদের করণীয়ও তুলে ধরেন তিনি।

গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহানে প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনাভাইরাস এখন বৈশ্বিক মহামারি। বিশ্বের প্রায় ২০০টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এ ভাইরাসটি। এখন পর্যন্ত এই প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লাখ ২৩ হাজার ৭৭ জন এবং মারা গেছেন ৩৪ হাজারের বেশি মানুষ। অপরদিকে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন এক লাখ ৫১ হাজার ৭৯৩ জন।

বাংলাদেশে এ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে গত ৮ মার্চ। করোনার বিস্তাররোধে দেশের সব স্কুল-কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় এবং সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে সভা-সমাবেশ ও গণজমায়েতের ওপর। 

বন্ধ করে দেয়া হয়েছে দেশের সব বিপণিবিতান। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে আদালতও। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বাস, ট্রেন, লঞ্চসহ সব ধরনের গণপরিবহন। এ কার্যক্রমে স্থানীয় প্রশাসনকে সহায়তার জন্য দেশের সব জেলায় মোতায়েন করা হয়েছে সশস্ত্র বাহিনী।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ/এস