Exim Bank
ঢাকা, মঙ্গলবার ২২ মে, ২০১৮
iftar

সাতক্ষীরা-দেবহাটা

দেবহাটায় শক্ত অবস্থানে জামায়াত

 বরুণ ব্যানার্জী, সাতক্ষীরা ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৩৯, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

আপডেট: ১৬:৫৮, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

১৯৮ বার পঠিত

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

আওয়ামী লীগের আত্মকলহ আর বিএনপির সাংগঠনিক দুর্বলতার বিপরীতে দেবহাটা জামায়াত ইসলামী রয়েছে অপেক্ষাকৃত সুবিধাজনক অবস্থানে। দলীয় কোন্দল ও হামলা-মামলা, সহিংসতায় জেলখাটা সত্ত্বেও জামায়াতের নেতাকর্মীরাও রয়েছে শক্ত অবস্থানে।

এখানে একসময়ে জাতীয় পার্টির শক্ত অবস্থান থাকলেও বর্তমানে অনেকটাই দুর্বল। তবে আ.লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির চেয়ে শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে জামায়াত।

এ উপজেলা থেকে সবার্ধিক বার সংসদে গেছেন আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী। দলের সাংগঠনিক অবস্থাও অত্যন্ত সুদৃঢ়। তবে আত্মকোন্দল রয়েছে দলে। স্থানীয় পর্যায়ে চারটি প্রধান রাজনৈতিক দলের সক্রিয় উপস্থিতি দৃশ্যমান। তবে সবচেয়ে বেশি কোন্দলে জড়িত সরকারে থাকা ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক সংগঠনটি। এখানকার আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে শক্ত অবস্থানে আছেন দলের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি। মূলত তাকে ঘিরেই দলের সব কর্মকাণ্ড পরিচালিত হয়।

মনিরুজ্জামান মনি বলেন, আমরা জামায়াত শিবিরের সহিংসতাকে সাংগঠনিকভাবে মোকাবিলা করেছি। আগামীতেও যে কোনো অপশক্তিকে মোকাবিলা করব। আর দলীয় কর্মসূচির মাধ্যমেই আগামী নির্বাচনে জয়ী হব।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)-এর দেবহাটা উপজেলায় তেমন কোনো সাংগঠনিক তৎপরতা নেই। নেতাকর্মীদের অভিযোগ, সাংগঠনিক ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছেন দলের স্থানীয় নেতারা। তারা দলের জন্য কাজ না করে বরং জামায়াত ইসলামীকে শক্তিশালী করতে সহায়তা করেছে।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি শেখ সিরাজুল ইসলাম বলেন, পুলিশি নির্যতনের কারণে নেতা কর্মীরা কেউ বাড়িতে থাকতে পারছেন না। ফলে দলীয় কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

দেবহাটায় জামায়াত ইসলামীর তৎপরতা মাঝে মাঝে দেখা যায়। বিভিন্ন মামলার কারণে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে সরাসরি অংশ নিতে দেখা যায় না কর্মীদের। কিন্তু গোপনে তারা সাংগঠনিক তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। সাংগঠনিক অবস্থান শক্তিশালী।

দলীয় কোন্দল না থাকলেও ভালো অবস্থানে নেই জাতীয় পার্টি। দলটির স্থানীয় রাজনীতি মূলত কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচিতে সীমাবদ্ধ।

উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মাবুদ গাজী বলেন, পার্টিতে কোনো কোন্দল নেই। নির্বাচনকে লক্ষ্যে রেখে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

>>>কাল থাকছে শ্যামনগর উপজেলার রাজনীতি...

ডেইলি বাংলাদেশ/আজ/এমআরকে

সর্বাধিক পঠিত